Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » এলগারকে ফিরিয়ে শক্ত জুটি ভাঙলেন তাইজুল




এলগারকে ফিরিয়ে শক্ত জুটি ভাঙলেন তাইজুল

বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচ। ছব প্রথম সেশনে দক্ষিণ আফ্রিকার ওপেনিং জুটি ভেঙে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু সময় গড়াতে সেই স্বস্তি মিলিয়ে যায়। কারণ জমে যায় প্রোটিয়াদের দ্বিতীয় জুটি। অধিনায়ক ডিন এলগার ও কিগান পিটারসেনের শক্ত জুটিতে লম্বা সময় ভোগে বাংলাদেশ। প্রথম সেশনেই হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন এলগার। দ্বিতীয় সেশনেও চলছিল তাঁর প্রতিরোধ। কিগান পিটারসেনের সঙ্গে জমে উঠেছিল এই জুটি। অবশেষে শক্ত এই জুটি ভেঙেছেন তাইজুল ইসলাম। ফিরিয়ে দিয়েছেন ডিন এলগারকে। ৮৯ বলে ৭০ রান করে সাজঘরে ফিরেছেন প্রোটিয়া অধিনায়ক। এর আগে প্রথম সেশনে সারেল এরউইয়াকে শুধু ফেরাতে পেরেছে বাংলাদেশ। ইনিংসের শুরুতে খালেদ আহমেদের এলবির ফাঁদে পড়েও বেঁচে যান এরউইয়া। এরপর দ্বিতীয় বার আর প্রোটিয়া ওপেনারকে সুযোগ দিলেন না খালেদ। তাঁকে ফিরিয়েই বাংলাদেশকে স্বস্তি উপহার দিলেন তরুণ এ পেসার। চার রানে জীবন পাওয়া এরউইয়া খেললেন ২৪ রানের ইনিংস। ৪০ বল মোকাবিলা করে ফিরলেন প্রোটিয়া ওপেনার। পোর্ট এলিজাবেথের কঠিন কন্ডিশনে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। টস হেরে বোলিংয়ে নামা বাংলাদেশ শুরুতেই পেয়ে যায় দারুণ সুযোগ। কিন্তু, নিজেদের সিদ্ধান্তহীনতার ভুলে সে সুযোগ কাজে লাগাতে পারলেন না মুমিনুলরা। দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই উইকেট পেতে পারত বাংলাদেশ। এরউইয়ার বিপক্ষে এলবিডব্লিউর জোরাল আবেদন তোলেন বাংলাদেশি পেসার সৈয়দ খালেদ আহমেদ। এরপর তিনি অধিনায়ক মুমিনুল হককে রিভিউ নিতে বলেন। কিন্তু, কেউ একজন জিজ্ঞাসা করেন ব্যাটে-বলের স্পর্শ হয়েছে কি-না। তাতে খালেদ নেতিবাচক আভাস দেন। এর মধ্যেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার ১৫ সেকেন্ড সময় অতিবাহিত হয়ে যায়। বাংলাদেশও সুযোগ হারায়। কারণ, টিভি রিপ্লেতে পরে দেখা যায়, ব‍্যাটে-বলের স্পর্শ ছিল না। বল সরাসরি আঘাত হানতো লেগ স্টাম্পের ওপরের দিকে। তাতে বেঁচে যান এরইউয়া। তখন উইকেটে ৪ রানে ছিলেন প্রোটিয়া তারকা। এ সফরেই প্রথম বার প্রোটিয়াদের ঘরের মাঠে ওয়ানডেতে হারাতে পেরেছে বাংলাদেশ। কিন্তু, ওয়ানডে জিতলেও টেস্টের পারফরম্যান্সে চরম হতাশা দেখা যায়। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে এর আগে মোট সাত টেস্টের পাঁচটিতেই ইনিংস ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ। তার মধ্যে ডারবানে সবশেষ ২২০ রানের পরাজয় এখনও তরতাজা। চার দিন লড়াইয়ে টিকে থেকেও পঞ্চম দিনে দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে স্রেফ উড়ে যায় বাংলাদেশ। প্রথম টেস্ট জিতে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে ডিন এলগারের দল। বড় হারের হতাশাকে সঙ্গে নিয়েই এবার টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার দুর্গ ভাঙার লক্ষ্যে মাঠে নেমেছে মুমিনুল হকের দল।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply