Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » বিস্ফোরক মন্তব্য করে বিপাকে পেসার রাহি




বিস্ফোরক মন্তব্য করে বিপাকে পেসার রাহি

জাতীয় দলের বাইরে থাকা পেসার আবু জায়েদ রাহি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে দল থেকে বাদ পড়েছেন পেসার আবু জায়েদ রাহি। দলে জায়গা না পেয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান অভিজ্ঞ এই পেসার। বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন তোলায় রাহিকে শুনানির জন্য ডাকা হতে পারে। সম্প্রতি ক্রিকবাজকে রাহি বলেছেন, তাঁকে বাদ দেওয়ার সঙ্গে ফর্মের কোনো সম্পর্ক নেই। ডানহাতি পেসারের এমন মন্তব্য নির্বাচক কমিটি ও টিম ম্যানেজমেন্টকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলে দিয়েছে। বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনস কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বলেছেন নির্বাচক কমিটিকে। তারা এই পেসারাকে শুনানির জন্য ডাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু এ ব্যাপারে ক্রিকেট বিষয়ক সংবাদমাধ্যম ক্রিকবাজকে বলেন, ‘আমরা তাকে (জায়েদ) ঈদের পর শুনানির জন্য ডাকব। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট স্কোয়াড থেকে বাদ পড়ার পর তাকে এভাবে কথা বলতে দেখে খুবই হতাশ হয়েছি আমরা। শুনানির পর তার বিরুদ্ধে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’ গত নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দলে থাকলেও একাদশে সুযোগ পাননি রাহি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে অভিজ্ঞ রাহির পরিবর্তে খালেদ আহমেদকে নেওয়া হয়। এমনকি দ্বিতীয় টেস্টের আগে তাসকিন আহমেদের চোটেও তাঁর সুযোগ হয়নি একাদশে। এর আগে শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ তিনটি টেস্টে কোনো উইকেট পাননি তিনি। অবশ্য গত কয়েক বছরে বাংলাদেশ টেস্ট স্কোয়াডে নিয়মিত সদস্য রাহি। সুইং ও দক্ষতার পরিচয় দিয়ে আসছেন তিনি। অবশ্য সাম্প্রতিক সাময়ে খুব একটা সাফল্য পাচ্ছেন না। তাই ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের দলে জায়গা হয়নি তাঁর। তাঁর বদলে দলে নেওয়া হয় তরুণ পেসার রেজাউর রহমান রাজাকে। দল থেকে বাদ পড়ে হতাশ রাহি ক্রিকবাজকে বলেন, ‘মিরপুরে গত দুই টেস্টে আমি এই পেস দিয়ে ১০ উইকেট নিয়েছি। আমার বোলিংয়ে কোনো ঘাটতি আছে, এটা আমি মনে করি না। এই পেসে আমি ১৩ ম্যাচে ৩০ উইকেট নিয়েছি।’ জাতীয় দলের বাইরে থাকা এই পেসার আরও বলেন, ‘আজকাল শুধু পেসে কাজ হয় না, সুইংও দরকার। গ্যারি কার্স্টেন ক্রিকেট একাডেমিতে (কেপটাউনে) আমাদের কর্মসালায়, একজন পেস বোলিং কোচ আমাদের বলেছিলেন, আমার দ্রুত বল করার দরকার নেই। ১৩০ কিলোমিটার গতিতে বল এবং সুইং করুন, এতেই হবে।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply