Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » তেল নিয়ে তেলেসমাতি, মুখ খুললেন বাণিজ্যমন্ত্রী




তেল নিয়ে তেলেসমাতি, মুখ খুললেন বাণিজ্যমন্ত্রী

দেশে ভোজ্যতেলের দাম বৃদ্ধি নিয়ে চলছে নানান আলোচনা। তেল নিয়ে চলমান এ তেলেসমাতি নিয়ে এবার মুখ খুললেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। জানালেন- ডিলার ও খুচরা ব্যবসায়ীরা বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। তিনি বলেন, “রমজান মাসে ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করেছিলাম দাম সহনীয় পর্যায় রাখতে। কিন্তু ডিলার ও খুচরা ব্যবসায়ীরা আমার অনুরোধ রাখেননি। তাদের অনুরোধ করা আমার বড় ভুল হয়েছে।” সোমবার (০৯ মে) দুপুরে সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ভোজ্যতেলের বাজার ব্যবস্থাপনা নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় নেপাল, ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কাসহ প্রায় সব দেশেই তেলের দাম বেড়েছে বলে মন্তব্য করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেড়েছে উল্লেখ করে টিপু মুনশি বলেন, “গত কয়েক দিন ধরে মিডিয়ায় তেলের দাম নিয়ে খবর ছাপা হচ্ছে। কিন্তু বিশ্ববাজারে দামের তারতম্য নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করা হচ্ছে না।” তেলের দাম না বাড়িয়ে উপায় ছিল না বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তেল সিন্ডিকেট নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “তেলের সিন্ডিকেটের কোনো নমুনা পাইনি। রিটেইলার, ডিলাররা সুযোগটা নিয়েছে। আমরা চেষ্টা করব রিটেইলার থেকে ডিলার পর্যায়ে কেউ যাতে সুযোগ নিতে না পারে। লাখ লাখ ডিলারের সিন্ডিকেট করার সুযোগ নেই।” মন্ত্রী বলেন, “বর্তমান পরিস্থিতিতে আমরা মনিটর করব। তবে ব্যবসায়ীদের চাপ দিতে চাই না। মানুষের ক্রাইসিস হলে ইন্টারফেয়ার করতে হবে। তবে মাঝে অনেকে সুযোগ নিয়েছে, কারণ তারা জানে ঈদের পর দাম বাড়বে। সেজন্য তারা মজুদ করে রেখেছিলো। রিটেইলার অপরাধ করলে সংগঠনেরও ব্যবস্থা নিতে হবে।” প্রসঙ্গত, গত ৫ মে বাংলাদেশ ভেজিটেবল ওয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকসার্স অ্যাসোসিয়েশন তেলের দাম নির্ধারণ করে দেয়। এতে লিটারপ্রতি ৩৮ টাকা বাড়িয়ে বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ১৯৮ টাকা করা হয়। খোলা সয়াবিন তেলের দাম লিটারপ্রতি ৪৪ টাকা বাড়িয়ে ১৮০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। ৭ মে থেকে বাজারে এ দাম কার্যকর হয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply