Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » যুক্তরাষ্ট্রে নিষিদ্ধ হচ্ছে গর্ভপাত! ফাঁস প্রস্তাবিত খসড়া




যুক্তরাষ্ট্রে নিষিদ্ধ ঘোষণা হতে পারে গর্ভপাত। সুপ্রিম কোর্টের একটি প্রস্তাবিত খসড়া ফাঁস হওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে গোটা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। এই ফাঁস হওয়া ড্রাফট রায় হিসেবে কার্যকর হলে তা ১৯৭৩ সালের যুগান্তকারী রায়কে সম্পূর্ণ বদলে দিতে পারে। বেআইনি ঘোষণা করা হতে পারে গর্ভপাত। এই রায় যুগান্তকগারী হবে বলেই অনুমান আন্তর্জাতিক মহলের। দেশজুড়ে এই রায় আলোড়ন ফেলে দিতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, ১৯৭৩ সালে রো বনাম ওয়েড মামলার পরিপ্রেক্ষিতে গর্ভপাতকে আইনসিদ্ধ করে রায় দিয়েছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট। রাজনৈতিক মহলের মতে এ ক্ষেত্রে ফের একবার গর্ভপাত নিষিদ্ধ ঘোষণা হলে তা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি অংশে বড় প্রভাব ফেলবে। যদিও ওই ড্রাফট অনুযায়ী এবার থেকে গর্ভপাত মার্কিন প্রদেশগুলির নিয়ন্ত্রণাধীন থাকবে। যদিও এখনও পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত নয় বলেই জানা যাচ্ছে। গর্ভপাত নিষিদ্ধ হওয়ার পক্ষে কোন কোন বিষয়গুলি উল্লেখ করা হয়েছে? সুপ্রিম কোর্টের ওই ফাঁস হওয়া খসড়া জানাচ্ছে, ১৯৭৩ সালে রো বনাম ওয়েড মামলার পরিপ্রেক্ষিতে দেওয়া রায় সঠিক ছিল না। এই রায় দিয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টের তৎকালীন বিচারপতি স্যামুয়েল আলিটো। তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশ তাকে নিয়োগ করেছিলেন। উল্লেখ্য, ডবস বনাম জ্যাকসন উইমেন হেলথ অর্গানাইজেশনের একটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে ১৫ সপ্তাহ পর গর্ভপাতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল মিসিসিপির কোর্ট। সেই মামলার রায়ও উল্লেখ করা হয়েছে ফাঁস হয়ে যাওয়া ওই ড্রাফটে। তবে গর্ভপাত নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে প্রদেশগুলিই। এমনটাই উল্লেখ করা হয়েছে ওই ড্রাফটে। প্রসঙ্গত, গত বছর নভেম্বর মাসে এক অন্তঃসত্ত্বা মহিলার মৃত্যুতে পোল্যান্ড জুড়ে নতুন করে শুরু হয় গর্ভপাত আইন নিয়ে বিতর্ক। গর্ভপাত সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ না হলে মহিলাকে বাঁচানো যেত বলে বিতর্ক শুরু হয়। প্রসবের সময় মৃত্যু হয় ৩০ বছরের ইসাবেলার। ২২ সপ্তাহ গর্ভধারণের পরই ইসাবেলা জানতে পারেন তার শিশুর গর্ভেই মৃত্যু হয়েছে। তা সত্ত্বেও মেলেনি গর্ভপাতের অনুমতি। ফলে চিকিৎসকদের চোখের সামনেই প্রসবের সময় মৃত শিশুর জন্ম দিতে গিয়ে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েন ইসাবেলা। যা নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন পোল্যান্ডবাসী। এই নিয়ে হাজার হাজার পোল্যান্ডবাসী নেমেছিলেন রাস্তায়। ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে দেওয়া গর্ভপাত বিরোধী আইনের প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন তারা। সূত্র: এই সময়






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply