Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » রাশিয়ার ওপর নজর রেখে জরুরি আলোচনায় বসছে জি৭




জরুরি বৈঠকে বসছে সাত শিল্পোন্নত দেশের সংগঠন জি৭। ইউক্রেনে চলমান সংঘাতের মধ্যে রাশিয়াকে সামনে রেখে আগামী রোববার (০৮ মে) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। সংগঠনের বর্তমান চেয়ারম্যান জার্মানির উদ্যোগে নেতাদের সঙ্গে এদিনের আলোচনায় যোগ দেবেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কিও। জি৭ (গ্রুপ অব সেভেন) হচ্ছে জাপান, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র এই সাত দেশ নিয়ে গঠিত একটি সংগঠন। এ সাতটি দেশ হচ্ছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল স্বীকৃত বিশ্বের সাতটি মূল উন্নত অর্থনীতির দেশ। শুক্রবার (০৬ মে) জার্মান সরকারের মুখপাত্র ক্রিশ্চিয়ান হফম্যান এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আগামী ৮ মে একটা ঐতিহাসিক দিন। এদিন ইউরোপে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অবসান ঘটে। এদিন জি৭ অংশীদারদের সঙ্গে বৈঠকের আয়োজন করবেন চ্যান্সেলর ওলাফ শলজ।’ তিনি আরও বলেন, আলোচনায় যোগ দিয়ে ইউক্রেনের বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরবেন জেলেনস্কি। বৈঠকে রাশিয়ার ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয় নিয়ে জোট নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন বলে আগেই জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। গত বুধবার (০৪) এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, রাশিয়ার ওপর আরও অবরোধ আরোপে আগ্রহী তিনি। বিষয়টি নিয়ে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তিনি জি৭ ভুক্ত দেশগুলোর সাথে আলোচনা করবেন। আরও পড়ুন : মস্কভা ডুবানোয় সহায়তা করেছিল যুক্তরাষ্ট্র? রাশিয়ার সামরিক অভিযানের বিরোধিতা করে ইউক্রেনে অস্ত্র ও মানবিক সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে জি-৭ এর সদস্য দেশগুলো। অবশ্য কিয়েভ সামরিক সহযোগিতা না করতে পশ্চিমাদের সতর্ক করে আসছে মস্কো। ইউক্রেনকে সাতটি স্বয়ংচালিত অত্যাধুনিক কামান ব্যবস্থা দিচ্ছে জার্মানি। শুক্রবার (০৬ মে) হাউইটজার নামের এসব অস্ত্র সরবরাহের ঘোষণা দিয়েছেন জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টিন ল্যামব্রেখ্ট। হাউইটজার একটি দূরপাল্লার আর্টিলারি অস্ত্র। সাধারণত এটা ৩০ কিলোমিটার দূরে গোলা ছুড়তে পারে। তবে আরও উন্নত গোলা ব্যবহার করে এর পাল্লা বাড়ানো যায়। আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ট্রাকের ওপর বসানো এ কামান ব্যবস্থাকে প্যানজারহবিটজেন ২০০০ আর্টিলারি সিস্টেমও বলা হয়। অত্যাধুনিক এই অস্ত্র কীভাবে চালাতে হয় সে বিষয়ে ইউক্রেনীয় সেনাদের প্রশিক্ষণও দেওয়া হচ্ছে। শুক্রবার ইউক্রেনের সীমান্তবর্তী দেশ স্লোভাকিয়া সফরে যান জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী ল্যামব্রেখ্ট। পূর্ব-ইউরোপের দেশটিতে বেশ কিছু জার্মান সেনা মোতায়েন রয়েছে। এদিন এসব সেনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী। এরপর এক সংবাদ সম্মেলনে ইউক্রেনকে সাত হাউইটজার কামান ব্যবস্থা সরবরাহের ঘোষণা দেন। তবে করে নাগাদ অস্ত্রগুলো সরবরাহ করা হতে পারে তা জানাননি তিনি। আরও পড়ুন : ইউক্রেনকে অত্যাধুনিক কামান দিচ্ছে জার্মানি এর আগে গত মাসে ইউরোপের আরেক দেশ পোল্যান্ডও ইউক্রেনে হাউইটজারসহ বিভিন্ন সামরিক সরঞ্জাম পাঠিয়েছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ইউক্রেনে ডজনখানেক যুদ্ধযান, টুএসওয়ান কারনেশন সেলফ প্রপেলড হাউইটজার, ড্রোন, গ্র্যাড মাল্টিপল রকেট লঞ্চার ও পিওরুন (থান্ডারবোল্ট) ম্যান-পোর্টেবল এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম পাঠিয়েছে পোল্যান্ড। এদিকে যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনের সার্বিক পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখতে জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিয়েভ সফর করবেন বলে জানিয়েছেন জার্মান চ্যান্সেলর চ্যান্সেলর ওলাফ শলজ। বৃহস্পতিবার (০৫ মে) বার্লিনে চেক প্রজাতন্ত্রের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এক বৈঠক শেষে তিনি বলেন, রুশ বাহিনীর গোলার আঘাতে তছনছ হয়ে যাওয়া ইউক্রেনের সার্বিক পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখতে ও দেশটির ভবিষ্যত পুনর্গঠন নিয়ে কর্মপরিকল্পনা ঠিক করতে শিগগিরই কিয়েভ সফর করবেন জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক। এরপর ইউক্রেন সফর করতে পারেন স্বয়ং জার্মান চ্যান্সেলর শলজ। জার্মানিতে নিযুক্ত ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত ইতোমধ্যে বলেছেন, জার্মান চ্যান্সেলর নিজেও শিগগিরই কিয়েভ সফর করবেন। তবে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কিয়েভ সফরের সময়সূচি বিষয়ে এখন বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply