Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » হাঙ্গেরিতে জরুরি অবস্থা জারি




হাঙ্গেরিতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘাতের ফলে সৃষ্ট চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় মঙ্গলবার (২৪ মে) এ জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর ওরবান। তিনি বলেন, প্রতিবেশী ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধের ফলে হুমকি ও চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে হাঙ্গেরি। এসব হুমকি ও চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় দ্রুত পদক্ষেপের ক্ষেত্রে জরুরি ক্ষমতা প্রয়োগ করবে সরকার। গত মাসে (৩ এপ্রিল) অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনে বড় ব্যবধানে জয়ী হয়ে টানা চতুর্থ মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন ওরবান। তিনি এর আগেও ইউরোপের অভিবাসন সংকট ও করোনা মহামারির সময় বিশেষ আইন ব্যবহার করেছেন। নতুন জরুরি অবস্থা বিভিন্ন বিষয়ে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণে তার সরকারকে আরও শক্তিশালী করবে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। মঙ্গলবার এ অভিযানের তিন মাস পূর্ণ হয়। এদিন ফেসবুকে পোস্ট করা এক ভিডিও বার্তায় ওরবান বলেন, ইউক্রেন যুদ্ধ হাঙ্গেরির জন্য বড় হুমকি তৈরি করেছে। এটা আমাদের জাতীয় নিরাপত্তাকে ঝুঁকির মুখে ফেলেছে। আরও পড়ুন : ফের হাঙ্গেরির ক্ষমতায় পুতিন ঘনিষ্ঠ ওরবান তিনি আরও বলেন, বিশ্ব একটি অর্থনৈতিক সংকটের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। হাঙ্গেরিকে অবশ্যই ইউক্রেন যুদ্ধ থেকে দূরে থাকতে হবে এবং পরিবারের আর্থিক নিরাপত্তা রক্ষা করতে হবে। আল-জাজিরা জানায়, বুধবার (২৫ মে) সকাল থেকেই পূর্ব-ইউরোপের দেশটিতে জরুরি অবস্থা কার্যকর হয়েছে। জরুরি অবস্থা ঘোষণার লক্ষ্যে আগের দিন মঙ্গলবারই সংবিধানে সংশোধনী এনে একটি আইন পাস করে ওরবানের ক্ষমতাসীন দল । এরপরই বিশেষ আইনি নির্দেশ (স্পেশাল লিগ্যাল অর্ডার) জারি করা হয়। যা আগামী পহেলা জুনে শেষ হবে। ওই নির্দেশ বলে পার্লামেন্টের অনুমোদন ছাড়াই শুধু ডিক্রি জারির মাধ্যমে আইন কার্যকর করতে পারবে সরকার। একই ধরনের পদক্ষেপ এর আগে করোনা মহামারির মোকাবিলায় প্রয়োগ করেছিল ওরবানের সরকার। আরও পড়ুন : ভাড়াটে বাহিনী দিয়ে পুতিনকে হত্যার চেষ্টা! রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ‘ঘনিষ্ঠ বন্ধু’ বলে পরিচিত ওরবান ২০১০ সালে প্রথমবারের মতো হাঙ্গেরির ক্ষমতায় আসেন। গত প্রায় এক যুগের শাসনে তার বিরুদ্ধে প্রায়ই দেশের গণতান্ত্রিক স্বাধীনতা খর্বের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ রয়েছে, ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতে রাষ্ট্রীয় সম্পদ ব্যবহার করেছেন তিনি। এরপরও গত মাসের নির্বাচনের মধ্যদিয়ে টানা চতুর্থবারের মতো ক্ষমতায় আসে তার দল ফিদেজ পার্টি। এর মধ্যদিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত কোনো দেশের সবচেয়ে দীর্ঘমেয়াদি শাসক হওয়ার গৌরব অর্জন করেন ওরবান






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply