Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » সমাজকল্যাণ মন্ত্রীকে হেলিকপ্টারে ঢাকায় স্থানান্তর




সমাজকল্যাণ মন্ত্রীকে হেলিকপ্টারে ঢাকায় স্থানান্তর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে ভর্তি হওয়া সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদকে বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারে করে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

রোববার (৮ মে) দুপুর দেড়টার দিকে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে রংপুর সেনানিবাসে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারে তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এর আগে, শনিবার গভীর রাতে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলায় তার বাসায় অবস্থানকালে হঠাৎ করে বুকে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করলে তাকে অ্যাম্বুলেন্স যোগে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে তাকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান শাকিল গফুর বলেন, তার (সমাজকল্যাণ মন্ত্রী) শারীরিক অবস্থা এখন স্থিতিশীল। তবে তার বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন আছে, যা ঢাকায় করালে ভালো হয়। আমরা তাকে ঢাকায় স্থানান্তর করার সুপারিশ করেছি। এদিকে মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহাম্মেদের একমাত্র ছেলে রাকিবুজ্জামান আহাম্মেদ বলেন, তার বাবা ঈদ উপলক্ষে নিজের নির্বাচনি এলাকায় কয়েক দিন আগে এসেছিলেন। প্রতিদিন বেশ কয়েকটি করে অনুষ্ঠানে তাকে যোগ দিতে হয়েছে। তার বয়স হয়েছে। শনিবার রাতে অসুস্থ বোধ করায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এসেছিলাম। এখানে প্রাথমিক চিকিৎসা হয়েছে। এমনিতেই তার ঢাকায় ডাক্তার দেখানোর কথা ছিল। তারপরেও তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে ঢাকায় নিয়ে যাচ্ছি। বাবার জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি। এদিকে, মন্ত্রীর অসুস্থতার খবর পেয়ে রংপুরের বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল ওহাব ভূঁইয়া জেলা প্রশাসক আসিন আহসান রংপুর মেট্রোপলিটান পুলিশের উপকমিশনার (অপরাধ) মারুফুর ইসলামসহ লালমনিরহাটের বিভিন্ন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতারের পরিচালক ডা. রেজাউর করিম বলেন, এখন মন্ত্রী মহোদয় ভালো আছেন। কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে হবে। এ জন্য হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply