Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » চলতি বছরেই আলোর মুখ দেখছে পদ্মা সেতুসহ ৪ মেগা প্রকল্প




চলতি বছরেই আলোর মুখ দেখছে পদ্মা সেতুসহ ৪ মেগা প্রকল্প

পদ্মা বহুমুখী সেতু, মেট্রোরেল, ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ও কর্ণফুলী টানেল চালু হতে যাচ্ছে এ বছর। এসব প্রকল্পের মধ্যে দুটির জন্য এডিপিতে বরাদ্দের চাপ কমলেও, বাড়ছে অন্য দুটিতে। ফলে শেষ দিকে থাকা প্রকল্প যেন অর্থ সংকটে না পড়ে তা নিশ্চিতের পাশাপাশি অন্যান্য মেগা প্রকল্পে অর্থায়নে সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ দিলেন বিশেষজ্ঞরা। নতুন করে মেগা প্রকল্প না নিয়ে চলমান প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে জোর দেওয়ার পরামর্শও তাদের। চলতি বছর চারটি মেগা প্রকল্প আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে। ২৫ জুন যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে পদ্মা সেতু। ডিসেম্বরে চালু হতে পারে রাজধানীর উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত দেশের প্রথম মেট্রোরেল। চট্টগ্রামের দুই অংশকে এক করতে নির্মিত কর্ণফুলি টানেল চালুর কথা রয়েছে অক্টোবরে। এলিভেট এক্সপ্রেসওয়ের এয়ারপোর্ট-তেজগাঁও অংশও চালু হতে যাচ্ছে এ বছর। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শেষ করতে বড় অঙ্কের বরাদ্দ রাখা হচ্ছে মেগা প্রকল্পগুলোতে। প্রকল্পগুলোর সিংগভাগই যোগাযোগ খাতের হওয়ায় এডিপির ২৯ শতাংশ বরাদ্দ থাকছে তাতে। মেট্রোরেলে ২ হাজার ৮৮২ কোটি, পদ্মা রেল সংযোগে ৫ হাজার ৮০০ কোটি, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে ১৩ হাজার ৩৯৫ কোটি, মাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্রে ৬ হাজার ৮১৫ কোটি, পায়রা গভীর সমুদ্রবন্দরে ৮০০ কোটি, কর্ণফুলি টানেলে ২ হাজার কোটি, বঙ্গবন্ধু রেলসেতু ৩ হাজার ৮৫০ কোটি, ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে ৪২১ কোটি ১৫ লাখ, দোহাজারী-রামু-কক্সবাজার রেল লাইনে ১২০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হচ্ছে। তবে নতুন করে নয়, চলমান মেগা প্রকল্প দ্রুত শেষ করতে বিশেষ নজর দেওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের। সিপিডির সিনিয়র রিসার্চ ফেলো তৌফিকুল ইসলাম খান বলেন, নতুন করে প্রকল্প নেওয়ার ক্ষেত্রে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। সামনে নির্বাচন, একটা বড় রাজনৈতিক চাপ হয়তো সরকারের ভেতরে আছে। আমি মনে করি, সরকারকে এবারের বাজেটে তার রাজনৈতিক চাপ থেকে বেশি অর্থনৈতিক চাপকে গুরুত্ব দিতে হবে। সুতরাং প্রকল্প নেওয়ার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকাটাই সরকারের জন্য ভালো। ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বলেন, উন্নয়ন লাগবে, কিন্তু উন্নয়নের যে প্রকল্পগুলো নেব, দেখে-শুনে নিতে হবে। যেখান থেকে রিটার্ন আসবে তাড়াতাড়ি, উৎপাদন হবে সে ধরনের প্রকল্প নিতে হবে। এরপর বিশ্ব যখন ভালো অবস্থানে তখন আমরা আমাদের মতো করে উন্নয়ন প্রকল্প নিতে পারব। চলমান বৈশ্বিক অস্থিরতায় অধিকতর গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প শেষ করতে প্রয়োজনে কম গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প বন্ধ রাখারও পরামর্শও বিশেষজ্ঞদের।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply