Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » যুদ্ধের সাজানো ভিডিও প্রকাশ করছে ইউক্রেন!




যুদ্ধের সাজানো ভিডিও প্রকাশ করছে ইউক্রেন!

ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চলে রুশ সেনাদের সঙ্গে লড়াইয়ের সাজানো ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করছে কিয়েভ। আর এসব ভিডিও বানাতে অর্থের যোগান দিচ্ছে যুক্তরাজ্য। এমন গুরুতর অভিযোগ করেছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রমাণ হিসেবে শুক্রবার (৩ জুন) কয়েকটি ভিডিও ক্লিপ প্রকাশ করে মস্কো। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশে ইউক্রেনে বিশেষ সেনা অভিযান শুরু করে মস্কো। এখনো দেশটির বিভিন্ন অঞ্চলে লড়াই চলছে রাশিয়া আর ইউক্রেনীয় সেনাদের মধ্যে। যুদ্ধের শুরু থেকেই পশ্চিমা গণমাধ্যম কিয়েভসহ ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে রুশ সেনাদের হামলার ভিডিও প্রকাশ করে আসছে। তবে এবার কয়েকটি ভিডিও প্রকাশ করে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, রাশিয়ার সেনাদের সঙ্গে লড়াইয়ের সাজানো ভিডিও বানাচ্ছে কিয়েভ। খবর আরটি’র। শুক্রবার রাশিয়ার বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত ওই ভিডিও ফুটেজের একটিতে রুশ সেনাদের দুটি সাঁজোয়া যান দেখা যায়। এক নারী সেনা কর্মকর্তার নির্দেশে স্বংয়ক্রিয় অস্ত্র হাতে সাঁজোয়া যান থেকে বের হয়ে আসে বেশ কয়েকজন সেনা সদস্য। মস্কোর দাবি, ওই নারী কোনো সেনা কর্মকর্তা নন বরং একজন চলচ্চিত্র প্রযোজক। আর ওই সাঁজোয়া যান এবং সেনাসদস্যরা সবাই ইউক্রেনের। আরও পড়ুন: ইউক্রেনে ‘ঐতিহাসিক’ ভুল করেছেন পুতিন? আরেকটি ভিডিও ফুটেজে ইউক্রেনীয় সেনাদের একটি ধংস হয়ে যাওয়া ভবনের ভেতর থেকে অজ্ঞাত শত্রুদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে দেখা যায়। একপর্যায়ে শত্রু পক্ষও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে পিছু হটে ইউক্রেনীয় সেনারা। এ সময় দৃশ্যপটে পেশাদার একদল ভিডিও ধারণকারীকে দেখতে পাওয়া যায়। যাদের পরিচালনায় রুশ সেনাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের নাটক সাজানো হচ্ছিল বলে দাবি মস্কোর। এসব ভিডিও চলমান যুদ্ধে ইউক্রেনীয় সেনাদের মনোবল বাড়াতে ব্যবহার করা হতো বলেও অভিযোগ করেছে রাশিয়া। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি, এই সাজানো ভিডিওগুলো বানাতে ইউক্রেনকে অর্থসহ সব রকমের সহায়তা দিয়েছে যুক্তরাজ্য। মারিওপোলের রাজনৈতিক বিপর্যয় এবং দোনবাসে রুশ সেনাদের কাছে ইউক্রেনীয় সেনাদের পরাজয় ঢাকতেই এই ভিডিওগুলো ব্যবহার করা হবে বলে দাবি মস্কোর।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply