Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » সাকিবই টেস্ট অধিনায়ক, ডেপুটি লিটন দাস




আগেই ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল, অবশেষে এল আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। ব্যর্থতার দায় নিয়ে মোমিনুল সরে দাঁড়ানোর পর তৃতীয় দফায় বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়কত্ব পেলেন সাকিব আল হাসান। সেইসঙ্গে তার সহ-অধিনায়ক হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে সময়ের সেরা ব্যাটার লিটন দাসকে। বৃহস্পতিবার (২ জুন) বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালনা পর্ষদের সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এদিন বিকেলে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন নিজেই আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দিয়েছেন নতুন অধিনায়ক, সহ-অধিনায়কের নাম। ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার কাছে সিরিজ হারের পাশাপাশি ব্যাট হাতে টানা ব্যর্থতার কারণে নিজ থেকেই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়েছেন মোমিনুল হক। তাই বাধ্য হয়ে নতুন অধিনায়ক খুঁজে নিতে হল বিসিবিকে। আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থেকেই শুরু হচ্ছে সাকিব-লিটন জুটির দায়িত্ব। এর আগের দুই দফায়ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ দিয়েই টেস্ট অধিনায়কত্ব শুরু করেন সাকিব। সেই দু’দফায় মোট ১৪টি টেস্টে নেতৃত্ব দিয়েছেন সাকিব। যেখানে বাংলাদেশ দল জয় পায় তিনটি ম্যাচ। ২০০৯ সালের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে মাশরাফি বিন মর্তুজার চোটে আর কোনো উপায়ন্তর না থাকায় সাকিবকেই দেয়া হয় টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব। সে দফায় সাকিব ২০১১ সালের জিম্বাবুয়ে সফর পর্যন্ত নেতৃত্ব দেন। জিম্বাবুয়ে সফরে ব্যর্থতার দায়ে তাকে অধিনায়কত্ব থেকে সরানো হয়। পরে ২০১৮ সালে আবারও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের আগেই মুশফিকুর রহিমকে সরিয়ে সাকিবকে দায়িত্ব দেয়া হয়। সেবার মাত্র চার ম্যাচে নেতৃত্ব দিতে পারেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। ২০১৯ সালের অক্টোবরে আইসিসির নিষেধাজ্ঞা পাওয়ার আগে শেষ ম্যাচেও সাকিব ছিলেন বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক। নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরার পর নিয়মিত টেস্ট খেলা নিয়ে সাকিবের মধ্যে একপ্রকার অনীহাই দেখা দেয়। তবে এবার সাদা পোশাকের ক্রিকেটে গুরুত্ব দেয়ার ইচ্ছা থেকেই অধিনায়কত্ব নিতে রাজি হন সাকিব। আর সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ দিয়েই শুরু হচ্ছে তার তৃতীয় দফার দায়িত্ব। অন্যদিকে এর আগে কখনও কোনো পর্যায়ে নেতৃত্বে দেখা যায়নি লিটন দাসকে। এবারই প্রথমবারের মতো নেতৃত্বের প্যানেলে ঢুকে পড়লেন সময়ের অন্যতম সেরা এই ব্যাটার। হয়তো ভবিষ্যৎ অধিনায়ক হিসেবেই তার কথাই ভাবছে বিসিবি। তাই এখন থেকেই সাকিবের অধীনে রেখে তৈরি করা হবে লিটনকে। এদিকে, আগামী ১৬ জুন শুরু হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের প্রথম টেস্ট। সেই ম্যাচ দিয়েই নতুন দফায় টেস্ট অধিনায়কত্ব শুরু করবেন সাকিব। লিটনের ক্যারিয়ারেরও নতুন অধ্যায় শুরু হতে চলেছে এই অ্যান্টিগা টেস্ট দিয়েই। যা তার ক্যারিয়ারের নতুন চ্যালেঞ্জও বটে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply