Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » শিক্ষার্থীদের কর্মদক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী




শিক্ষার্থীদের কর্মদক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী

রাজশাহীর বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে আজ বৃহস্পতিবার বক্তব্য দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষার্থীদের কেবল ডিগ্রি দিয়ে গ্রাজুয়েট করে ছেড়ে দিলেই হবে না, তাদের কর্মদক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে, যেন তারা শিক্ষা জীবন শেষে দেশ, রাষ্ট্র ও বিশ্বের জন্য সম্পদে পরিণত হয়। রাজশাহী নগরীর খড়খড়িতে আজ বৃহস্পতিবার বেসরকারি বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন। সরকার ২০১০ সালের শিক্ষানীতি সংশোধন, পরিমার্জন ও সংযোজনের কাজ করছে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির বয়সের যেসব জায়গায় বাধা রয়েছে, সেগুলো দূর করার চেষ্টা করছি। পরিবর্তনের চেষ্টা করছি। তবে, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকেও এই পরিবর্তনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হবে।’ দীপু মনি আরও বলেন, ‘আমরা পুঁথিগত ও মুখস্থ বিদ্যা থেকে বের করে শিক্ষার্থীদের সৃষ্টিশীল শিক্ষায় সুদক্ষ করতে চাই। বঙ্গবন্ধুকন্যা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছেন। এখন তিনি সামনের দিনে এই বাংলাদেশকে উদ্ভাবনী বাংলাদেশ হিসেবে দেখতে চান।’ মন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি শিক্ষাকে জোর দিতে হবে। কারণ, ইংরেজি কেবল শিক্ষা নয়, এটি একটি হাতিয়ার। এর সঙ্গে আইসিটি পড়াতে হবে। যে যেই বিষয়ই পড়ুক না কেন, আমি সবাইকে সব বিষয়ের সঙ্গে অবশ্যই সাহিত্য ও দর্শন পড়াতে বলব। কারণ, তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। সাহিত্য যে জীবনবোধ তৈরি করে, সেটি যদি সঞ্চারিত না হয়, দর্শনবোধ তৈরি না হয়, তাহলে তার পক্ষে প্রকৃত মানুষ হওয়া সম্ভব নয়। খুব বেশি পড়তে হবে তা নয়, কিন্তু এগুলো সম্পর্কে জানতে হবে।’ এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর, রাজশাহী সিটি মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. দিল আফরোজ বেগম এবং ইউজিসির বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সদস্য অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ্র চন্দ। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. ওসমান গনি তালুকদার। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি অনুষদভুক্ত ১০টি বিভাগের চার হাজার গ্র্যাজুয়েটকে আনুষ্ঠানিকভাবে ডিগ্রি প্রদান করা হয়। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে দুই শিক্ষার্থীকে ‘চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল’ এবং নয় শিক্ষার্থীকে ‘ভাইস-চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল’ প্রদান করা হয়।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply