Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মৌলভীবাজারে বন্যায় ৩৫ ইউনিয়নের মানুষ পানিবন্দি




মৌলভীবাজারে বন্যায় ৩৫ ইউনিয়নের মানুষ পানিবন্দি

মৌলভীবাজারে টানা ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল এবং কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বন্যা দেখা দিয়েছে। একই সঙ্গে বন্যায় জেলায় ৩৫ ইউনিয়নের ৩২৫ গ্রামের প্রায় ২ লাখ ৭ হাজার ৫০০ মানুষ পানিবন্দি রয়েছেন। রোববার (১৯ জুন) বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে এই দৃশ্য দেখা যায়। অন্যদিকে বিদ্যুতের সাব স্টেশনে বন্যার পানি প্রবেশ করায় ইতোমধ্যে জুড়ী ও বড়লেখায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। তবে কুলাউড়া-বড়লেখা আঞ্চলিক মহাসড়কের বিভিন্ন স্থান বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। জুড়ী উপজেলা কমপ্লেক্সে কোমর পানি থাকায় কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। জেলা প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, বন্যায় বড়লেখা উপজেলায় বড়লেখা পৌর এলাকায় ১০টি ইউনিয়নের ২০০ গ্রামের ১ লাখ ৬০ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। কুলাউড়ায় উপজেলায় ফানাই নদীর বাঁধ ভেঙে ও হাকালুকি হাওড়ের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ৭টি ইউনিয়ন ৫০ গ্রামের ১০ হাজার মানুষ পানিবন্দি রয়েছেন। জুড়ী উপজেলায় ৩টি ইউনিয়নের ২৮টি গ্রামের প্রায় ১৬ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। এছাড়া মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে ৬টি ইউনিয়ন ২০ গ্রামের প্রায় ৭ হাজার ৫০০ মানুষ পানিবন্দি। রাজনগর উপজেলায় ৪টি ইউনিয়নের ১৫টি গ্রামের প্রায় ১০ হাজার ও শ্রীমঙ্গল উপজেলায় পাঁচ ইউনিয়নের ১২টি গ্রামের ৪ হাজার মানুষ পানিবন্দি রয়েছেন। তবে এ সকল গ্রামের অধিকাংশ রাস্তা ঘাট পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় জনসাধারণের চলাচলে দুর্ভোগ সৃষ্টি হয়। গ্রামগুলোর সঙ্গে বিদ্যুৎ সংযোগ ও যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রায় বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে। মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান জানান, এ পর্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ প্রায় ২৪টি পরিবারকে আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়েছে। একই সঙ্গে জেলার সবকটি নদী ও হাওরের পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply