Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ৯ রানের মধ্যেই হারিয়েছে ৫ উইকেট, প্রথম ইনিংসে ধুঁকছে ইংল্যান্ডও




ছবি: সংগৃহীত লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৩২ রানে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড। জবাব দিতে নেমে ভালো শুরুর পরও ১১৬ রানেই ৭ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে ইংল্যান্ডও। নিউজিল্যান্ডের ১৩২ রানের জবাব দিতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতেই ৫৯ রান তোলেন ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার অ্যালেক্স লিস ও জ্যাক ক্রলি। দলীয় ৫৯ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ২৫ রান করে ফিরে যান ক্রলি। এই রানের সাথে দলীয় আরও ১৬ রান যোগ করতেই ফিরে যান ওয়ান ডাউনে নাম ওলি পোপ। ৯২ রানের মাথায় ব্যক্তিগত মাত্র ১১ রান করেই ফেরেন দলটির সদ্য সাবেক অধিনায়ক জো রুট। এরপরই বিপর্যয় নামে ইংলিশ শিবিরে। দলের এই রানের সাথে আর ৮ রান যোগ করতেই বিদায় নেন আরও ৪ ব্যাটার। ১ম দিন শেষে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ১১৬ রানে ৭ উইকেট। ৬ রানে ব্যাট করছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটার বেন ফোকস। তার সঙ্গী স্টুয়ার্ট ব্রড। নিউজিল্যান্ডের হয়ে বল করা সবাই উইকেট পেয়েছেন। দুইটি করে উইকেট নিয়েছেন টিম সাউদি, ট্রেন্ট বোল্ট ও কাইল জেমিসন। একটি উইকেট শিকার করেছেন কলিন ডি গ্রান্ডহোম। এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ২ রানের মধ্যেই ২ উইকেট হারায় কিউইরা। দুইটি উইকেটই শিকার করেন এই ম্যাচে ইংল্যান্ড দলে প্রত্যাবর্তন করা জেমস আন্ডারসন। এরপর ৭ রানে তৃতীয় উইকেট হারায় কেন উইলিয়ামসনের দল। প্রত্যাবর্তন ঘটা আরেক পেসার স্টুয়ার্ট ব্রডের বলে জনি বেয়ারস্টোর হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ডেভন কনওয়ে। আর ১২ রানের মাথায় অধিনায়ক উইলিয়ামসনকে ফিরিয়ে দেন নবাগত ম্যাটি পটস। এরপর ২৭ ও ৩৬ রানে ড্যারেল মিচেল ও টম ব্লান্ডেলকেও ফিরিয়ে দেন পটস। ৪৫ রানের মাথায় ফের আন্ডারসনের আঘাত। দুর্দান্ত এক বলে জেমিসনকে ফেরান জিমি। এরপর ৪১ রানের জুটি গড়ে প্রতিরোধের ইঙ্গিত দেন টিম সাউদি ও কলিন ডি গ্রান্ডহোম। তবে, ৮৬ রানের মাথায় সেই আন্ডারসনই ফেরান সাউদিকে। ১০২ রানের মাথায় আজাজ প্যাটেলকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন পটস। আর নিউজিল্যান্ডের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন অধিনায়ক স্টোকস। ১৪ রান করা বোল্টকে ফেরান ইংলিশ অধিনায়ক। ফলে, কিউইদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৩২ রানে। নিউজিল্যান্ডের হয়ে শেষ পর্যন্ত ৪২ রানে অপরাজিত থাকেন গ্রান্ডহোম। ইংলিশদের পক্ষে সমান চারটি করে উইকেট নেন আন্ডারসন ও পটস। ব্রড ও আন্ডারসনের শিকার ১টি করে উইকেট।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply