Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » ইনজুরি শঙ্কা কাটিয়ে উইম্বলডন নিয়ে আশাবাদী নাদাল




ইনজুরি শঙ্কা কাটিয়ে উইম্বলডন নিয়ে আশাবাদী নাদাল

ইনজুরি পুরোপুরি না সারলেও, উইম্বলডনে খেলার ব্যাপারে আশাবাদী স্প্যানিশ টেনিস তারকা রাফায়েল নাদাল। এক অনুষ্ঠানে স্বাক্ষাতকারে তিনি বলেন, সবকিছু ঠিক থাকলে, আগামী সপ্তাহেই লন্ডন পাড়ি জমাবেন নাদাল। খেলবেন উইম্বলডনে। তবে, ক্লে কোর্টের চেয়ে গ্রাস কোর্টের লড়াইটা চ্যালেঞ্জিং বলে দাবি করেন রেকর্ড ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের এই মালিক। ২৭ জুন থেকে শুরু হতে যাচ্ছে টেনিস বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন ও মর্যাদাপূর্ণ গ্র্যান্ড স্ল্যাম উইম্বলডন। বিশ্ব টেনিস অঙ্গনের ছোট বড় সব তারকা খেলোয়াড়রা অপেক্ষায় থাকেন সবুজ কোর্টের এই লড়াইয়ের জন্য। অপেক্ষায় আছেন রাফায়েল নাদালও। মাত্র কদিন আগেই ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা জিতে ক্যারিয়ারের ২৩ তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম ঝুলিতে পুড়েছেন নাদাল। আধুনিক টেনিস বিশ্বে যা একমাত্র রেকর্ড। তবে, এই অর্জনের পেছনে রয়েছে অনেক ত্যাগ। ক্লে কোর্টের প্রতিটি ম্যাচে ব্যাথানাশক ইনজেকশন নিয়ে খেলেছেন এই স্প্যানিশ তারকা। তার আগে ছিলেন ৬ সপ্তাহের ইনজুরিতে। আরও পড়ুন:ক্যাসপারকে উড়িয়ে দিয়ে ফ্রেঞ্চ ওপেনে রেকর্ড ১৪তম শিরোপা নাদালের ফ্রেঞ্চ ওপেন শেষ হওয়ার পর নাদাল বলেছিলেন তিনি খেলতে চান উইম্বলডনেও। যদিও ২০১৯ এর পর থেকে ঘাসের এই লড়াইয়ে খেলা হয়নি তার। এছাড়া উইম্বলডনে তার অর্জনটাও খুব একটা সুখকর নয়। সবশেষ ১১ বছর আগে ফাইনাল খেলেছিলেন নাদাল। ইনজুরি পুরোপুরি ভালো না হলেও, এবারের উইম্বলডনে খেলা নিয়ে আশাবাদী ক্লে কোর্টের রাজা। এই স্প্যানিশ বলেন, 'আমি অবশ্যই উইম্বলডন খেলতে চাই। প্যারিসে ফ্রেঞ্চ ওপেন জয়ের পরও একই কথা বলেছি। এক সপ্তাহ অনুশীলনের পর আমার মনে হচ্ছে আমি লন্ডনে পরের সপ্তাহেই যেতে পারবো। যদি আমি মেষপর্যন্ত লন্ডনে যেতে পারি, তাহলে অবশ্যই আমি খেলবো।' আরও পড়ুন:রাশিয়ানদের নিষিদ্ধ করায় উইম্বলডন কর্তৃপক্ষের ওপর খেপলেন নাদাল ক্লে কোর্টটা সবসময় পছন্দ করেন নাদাল। তবে, ঘাসের কোর্টেও চ্যালেঞ্জটা বেশ উপভোগ করেন স্প্যানিশ তারকা। এবারো তেমনটি প্রত্যাশা রাফার। তিনি বলেন, 'সমস্যা হচ্ছে রোঁলা গ্যারোয় খেলে আমার আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। কিন্তু ঘাসের কোর্টে খেলাটা ভিন্ন একরকম চ্যালেঞ্জ। আমি অনেক বছর ধরে ঘাসের কোর্টে কোন অফিশিয়াল ম্যাচ খেলিনা। এখানে প্রতিটি রাউন্ডই অনেক চ্যালেঞ্জিং, বিশেষ করে শুরুর রাউন্ড গুলো।' চলতি বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও ফ্রেঞ্চ ওপেন দুটো শিরোপাই শোকেজে তুলেছেন রাফায়েল নাদাল। উইম্বলডনেও কি একই লক্ষ্য নিয়ে লড়বেন এই স্প্যানিশ তারকা? তা এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply