Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » আম্পায়ার আউট দিয়ে দিয়েছেন, এবার ক্রিজ ছাড়ুন! হুঙ্কার শ্রীলঙ্কার তারকা সনৎ জয়সূর্য ক্রিকেটারের




আম্পায়ার আউট দিয়ে দিয়েছেন, এবার ক্রিজ ছাড়ুন! হুঙ্কার শ্রীলঙ্কার তারকা ক্রিকেটারের শ্রীলঙ্কায় জারি হয়েছে জরুরি অবস্থা। গণবিক্ষোভে উত্তাল দেশ। সেই আবহেই প্রাক্তন ক্রিকেটার সনৎ জয়সূর্য তুমুল সমালোচনা করলেন প্রধানমন্ত্রীর। টালমাটাল অবস্থা শ্রীলঙ্কার। বুধবারই জারি হয়েছে জরুরি অবস্থা। গণবিক্ষোভে উত্তাল কলম্বো। রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন হাজার হাজার মানুষ। পরিস্থিতি দেখে স্থির থাকতে পারলেন না শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রিকেটতারকা সনৎ জয়সূর্য। পৃথিবীবিখ্যাত কমিক চরিত্র এবং ক্রিকেটের জোড়া ফলায় বিদ্ধ করলেন নিজের দেশের সরকারকে। প্রসঙ্গত, এর আগেও দেশবাসীর বিক্ষোভে যোগ দিয়ে রাস্তায় নেমেছিলেন বিশ্বকাপজয়ী শ্রীলঙ্কা দলের তারকা সদস্য জয়সূর্য। তাঁর সেই ছবি ছড়িয়ে পড়েছিল সারা পৃথিবীতে। সেই ছবিতে দেখা গিয়েছিল, সাধারণ মানুষের ভিড়ে মিশে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের প্রাসাদের সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তিনি। বুধবার শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থা ঘোষণার পরেই জয়সূর্য একটি কড়া টুইট করেন। সেই টুইটে দেশের প্রধানমন্ত্রী এবং আপাতত তদারকি প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমসিঙ্ঘের তুমুল সমালোচনা করেছেন জয়সূর্য। লিখেছেন, ‘মনে হচ্ছে মিস্টার বিনকে ক্রিকেট দলে নেওয়া হয়েছে। অথচ তিনি ক্রিকেটার নন। অভিনেতা। সেই কারণে নির্বাচকরা তাঁকে দল থেকে ছেঁটে ফেলেছিলেন। শুধু তা-ই নয়। আ

পায়ার আউট দেওয়ার পরেও ক্রিজ ছেড়ে কিছুতেই বেরোতে চাইছেন না। খেলে যেতে চাইছেন। সব খেলা এ বার শেষ। ক্রিকেটে শেষ ব্যাটারের ব্যাট করার কোনও নিয়ম নেই। এ বার সসম্মানে বিদায় নিন।’ Advertisement Advertisement প্রসঙ্গত, ‘মিস্টার বিন’ ব্রিটেনের এক কমিক চরিত্র। শুধু ব্রিটেন নয়, গোটা বিশ্বেই এই কমিক চরিত্র তুমুল জনপ্রিয়। মিস্টার বিন এমন একজন চরিত্র, যিনি না বুঝেই মজার মজার কাণ্ডকারখানা, বোকার মতো বিভিন্ন কাজ করে বসেন। তা দেখে হেসে কুটিপাটি হন দর্শকরা। সিনেমা, ওয়েব সিরিজও হয়েছে মিস্টার বিনকে নিয়ে, যেখানে নামভূমিকায় অভিনয় করেছেন রোয়ান অ্যাটকিনসন। Ads by জয়সূর্য সেই মজাদার (আসলে ভাঁড়) চরিত্রের সঙ্গেই তাঁর দেশের রাষ্ট্রনায়কের তুলনা করেছেন। তার টুইটে স্পষ্ট যে, বিক্রমসিঙ্ঘের কাণ্ডকারখানা দেখে জয়সূর্যের মনে হচ্ছে, তিনি না বুঝে অনেক কাজ করছেন। যার ফল ভোগ করতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। জয়সূর্য বোঝাতে চেয়েছেন, দেশের মানুষ বিক্রমসিঙ্ঘেকে চাইছেন না। কিন্তু তিনি জোর করে ক্ষমতা ধরে রাখছেন। ক্রিকেটের পরিভাষায়, আম্পায়ার আউট দিয়ে দেওয়ার পরেও ক্রিজ ছাড়তে চাইছেন না। কিন্তু পাশাপাশিই জয়সূর্য লিখেছেন, এখন আর পালানোর পথ নেই। এ বার বিক্রমসিঙ্ঘেকে সিংহাসন ছাড়তেই হবে। মঙ্গলবারও মিস্টার বিনের তুলনা টেনে এনে বিক্রমসিঙ্ঘের সমালোচনা করেছিলেন জয়সূর্য। লিখেছিলেন, ‘মানুষ ক্রমশ ক্রুদ্ধ হয়ে পড়ছে। পদত্যাগ করে এ বার বাড়ি যান। মিস্টার প্রেসিডেন্ট এবং মিস্টার প্রধানমন্ত্রী কি বুঝতে পারছেন না, এটা বাস্তব! মিস্টার বিনের কোনও সিনেমা নয়। আপনারা সাধারণ মানুষের জীবন নিয়ে ছেলেখেলা করছেন!’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply