Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » জেরার মুখে ভেঙে পড়েছেন পার্থ, কাঁদছেন অর্পিতা




টানা ২৪ ঘণ্টা জেরার মুখে ভেঙে পড়েছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের প্রভাবশালী মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। আর দফায় দফায় কাঁদছেন ২১ কোটি ৯০ লাখ টাকাসহ গ্রেফতার ওই মন্ত্রীর কথিত বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ শিল্প ও বাণিজ্য দফতরের মন্ত্রী হিসেবে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে রাখা হবে কিনা তা নিয়ে শুরু হয়েছে নানা জল্পনা। এরমধ্যেই বুধবার (২৭ জুলাই) সকালে তাকে দেয়া নিরাপত্তা এবং সরকারি গাড়ি প্রত্যাহার করে নিয়েছে রাজ্য সরকার। শেষ পর্যন্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোন পদেক্ষেপ নেবেন তা নিয়েই এখন চলছে আলোচনা। কেননা বিরোধীরা এ সুযোগে রাজনীতির মাঠ গরম করেছেন। তাদের নজর আগামী দুটি গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। একটি পঞ্চায়েত অন্যটি লোকসভা। আগামী ৩ আগস্ট ১০ দিনের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ফের পার্থ-অর্পিতাকে আদালতে হাজির করবে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ইডি। তাই ইডির গোয়েন্দারা এরইমধ্যে তদন্ত শেষ করতে চাইছে। তাই বুধবারও দফায় দফায় রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় চলছে তল্লাশি। ডাকা হয়েছে শিক্ষা কর্মকর্তা মানিক ভট্টাচার্যকেও (কোর্টের নির্দেশ চাকরিচ্যুত)। ইডি সূত্র নিশ্চিত করেছে, সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বসিয়ে জেরা করা হবে মানিক ভট্টার্চাযকে। কোনো তথ্যের অসঙ্গতি পেলে গ্রেফতারও করা হতে পারে সাবেক এই শিক্ষা কর্মকর্তাকে। কারণ দুর্নীতিতে জড়িত থাকার অভিযোগে ইতোমধ্যে তাকে পদ থেকে সরানো হয়েছে। এদিকে ইডির অনুসন্ধানে দুর্নীতির আরও অনেক তথ্য মিলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই কলকাতা, মেদিনীপুর, বীরভূম, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় কোটি কোটি টাকার সম্পদের হদিশ মিলেছে দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া পার্থ-অপির্তার নামে। একজন পেছনের সারির মডেল ও অভিনেত্রীর (অপির্তা মুখোপাধ্যায়) শত শত কোটি টাকার সম্পদের উৎস কী, সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন সংশ্লিষ্ট গোয়েন্দারা। আর কলকাতার গণমাধ্যমগুলো ইডি সূত্রের বরাত দিয়ে দাবি করছে, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নামে বিভিন্ন জেলায় সিন্ডিকেট ব্যবসা চলতো। শত শত ট্রাক রয়েছে তার। বহু আবাসনে রয়েছে ফ্ল্যাট, জেলা শহরে আছে বাংলো। গত কয়েক দিনে তার ১০০ কোটি টাকার বেশি সম্পদের হদিশ পেয়েছে ইডি। আরও পড়ুন: পার্থ ও অর্পিতার ব্যাপারে মুখ খুললেন মমতা এ ঘটনার পর মমতার বিরুদ্ধেও দুর্নীতির অভিযোগ করছেন বিরোধী নেতারা। বিজেপি নেতা সজল ঘোষ বলেন, ‘পুরো ঘটনা জানতেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কারণ তিনিই বলেছিলেন, যা চাঁদা উঠবে পার্টি ফান্ডে তার ৭৫ শতাংশ দিতে হবে। বাকি ২৫ শতাংশ রেখে দিতে হবে।’ পার্থর বান্ধবীর বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া প্রায় ২২ কোটি টাকা কি তাহলে ২৫ শতাংশের অংশ নাকি ৭৫ শতাংশ- মমতার প্রতি এই প্রশ্ন রেখে খোঁচাও দেন সজল ঘোষ। ইডি সূত্রের খবর, অর্পিতা এবং পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সল্টলেকের ইডি দফতরে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বুধবার আদালতের নির্দেশে তাদের শারীরিক পরীক্ষার জন্য হাপাতালেও নিয়ে যাওয়া হয়। এর আগে মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) সকাল থেকে চলে টানা জিজ্ঞাসাবাদ। জানা গেছে, গোয়েন্দাদের কোনো প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন না পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে ভেঙে পড়েছেন তিনি। আর মাঝে মধ্যেই কেঁদে বুক ভাসাচ্ছেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। স্কুল শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে মমতা ঘনিষ্ট সাবেক শিক্ষামন্ত্রী এবং বর্তমান শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী পার্থ ও তার বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে শনিবার (২৩ জুলাই) গ্রেফতার করে ইডি। গ্রেফতারের পরপরই বেরিয়ে আসে তাদের বিপুল সম্পদের তথ্য, যা নিয়ে বেশ অস্বস্তিতে রয়েছে রাজ্যটির শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply