Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ৭৪ বছরের রেকর্ড ভেঙে জিতল ইংল্যান্ড




অনবদ্য শতক হাঁকালেন জনি বেয়রেস্টো এবং জো রুট। ভারতের বিপক্ষে এজবাস্টনে এই দুজনের ব্যাটে ভর করেই টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে অষ্টম সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড গড়ল ইংল্যান্ড। ১৯৪৮ সালে হেডিংলিতে ৪০৪ রান তাড়া করে জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া। যা ছিল ইংল্যান্ডের মাটিতে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড। ৭৪ বছর পর মঙ্গলবার (৫ জুলাই) ইংল্যান্ডের মাটিতে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান তাড়ার রেকর্ড লেখা হলো নতুন করে। এর আগে ২০১৯ সালে হেডিংলিতে ৩৫৮ রান তাড়া করতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৯ উইকেটে ৩৬২ তুলে জিতেছিল ইংল্যান্ড। যা এতদিন ছিল তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান তাড়া করার ম্যাচ। পাঁচ টেস্ট সিরিজের শেষ ম্যাচে ভারত-ইংল্যান্ড মুখোমুখি হয় বার্মিংহামে। এর আগে প্রথম টেস্ট হয়েছিল ড্র, দ্বিতীয় ম্যাচে ১৫১ রানে জয় পায় ভারত। তৃতীয় ম্যাচে ৭৬ রানের জয়ে ঘুরে দাঁড়ায় ইংলিশরা। চতুর্থ ম্যাচে ১৫৭ রানের জয় পায় ভারত। ফলে ২-২ ব্যবধানেই শেষ হয় পাঁচ ম্যাচের এই সিরিজ। এদিন টেস্টের শেষ দিনে বোলিংয়ে অসাধারণ কিছু করে দেখাতে পারল না ভারত। আগের দিনের গড়া মঞ্চে সেঞ্চুরির উৎসবে মাতলেন জো রুট। জনি বেয়ারস্টো গড়লেন ম্যাচে জোড়া সেঞ্চুরির কীর্তি। তাদের রেকর্ড জুটিতে অসাধারণ রান তাড়ায় অনায়াস জয়ে সিরিজ শেষ করল ইংল্যান্ড। মঙ্গলবার এজবাস্টন টেস্টে ৭ উইকেট হাতে নিয়ে শেষ দিনে ইংল্যান্ডের দরকার ছিল ১১৯ রান। ৩৭৮ রানের লক্ষ্য স্বাগতিকরা ছুঁয়ে ফেলে প্রথম সেশনেই। এটিই টেস্ট ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয়। ২০১৯ সালে হেডিংলিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আগের সর্বোচ্চ ৩৫৯ রানের লক্ষ্য তাড়ায় ১ উইকেটে জিতেছিল বেন স্টোকসের অসাধারণ এক সেঞ্চুরিতে। অথচ ম্যাচের প্রথম তিন দিন ইংল্যান্ডের জয়ের কথা কজনই-বা ভেবেছিল! প্রথম ইনিংসে ভারতের চারশ ছাড়ানো রানের জবাবে এক পর্যায়ে যারা ৮৩ রানে হারিয়েছিল ৫ উইকেট, প্রথম ইনিংসে পিছিয়ে ছিল ১৩২ রানে, সেই দলই রান তাড়ায় আরেকটি চমক জাগানিয়া পারফরম্যান্সে তুলে নিল দুর্দান্ত এক জয়। জয়ের মূল কারিগর অবশ্যই বেয়ারস্টো। প্রথম ইনিংসে তার সেঞ্চুরিই বিপর্যয় থেকে টেনে তুলেছিল দলকে। আরেকটি সেঞ্চুরি করলেন তিনি রান তাড়ায় নেমে। এ নিয়ে সর্বশেষ ৫ ইনিংসে তার সেঞ্চুরি হলো ৪টি! ১৪৫ বলে ১৫ চার ও একটি ছক্কায় ১১৪ রানে অপরাজিত থাকেন বেয়ারস্টো। আর সিরিজে চতুর্থ সেঞ্চুরিতে রুট ১৭৩ বলে ১৯ চার ও একটি ছক্কায় করেন অপরাজিত ১৪২ রান। অন্যদিকে দুজনের অবিচ্ছিন্ন জুটির রান হলো ৩১৬ বলে ২৬৯। টেস্টের চতুর্থ ইনিংসে চতুর্থ উইকেটে সর্বোচ্চ জুটি এটিই। ১৯৭৮ সালে গায়ানায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩৫৯ রানের লক্ষ্য তাড়ায় অস্ট্রেলিয়ার গ্রায়েম উড ও ক্রেইগ সার্জেন্টের ২৫১ রানের জুটি ছিল আগের রেকর্ড। নতুন টেস্ট অধিনায়ক স্টোকস ও নতুন কোচ ব্রান্ডন ম্যাককালামের হাত ধরে বদলে যাওয়া ইংল্যান্ড আগের সিরিজে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টানা তিন টেস্ট জিতেছিল আড়াইশর বেশি রান তাড়া করে। এবার তারা ছাড়িয়ে গেল নিজেদেরকেই। জোড়া শতকে (১০৬ ও ১১৪*) এই ম্যাচের সেরা হয়েছেন জনিই। তবে সিরিজের সেরা হয়েছেন তারই সঙ্গী জো রুট। চার শতকে ৭৩৭ রান করার পাশাপাশি ২টি উইকেটও নেন রুট। এনএস//






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply