Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » বন্ধ হলো বিআরটির সব কাজ, বৃহস্পতিবার বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত




বন্ধ হলো বিআরটির সব কাজ, বৃহস্পতিবার বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত

ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম। ছবি : সংগৃহীত রাজধানীর বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের সব কাজ আপাতত বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, কোনোভাবেই দায় এড়াতে পারে না বিআরটি। প্রতিষ্ঠানটির উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘সব কাজ বন্ধ করে আপনারা আমার সঙ্গে আগামী পরশুদিন (বৃহস্পতিবার) বসবেন।’ নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করলেই প্রকল্পের কাজ শুরু করতে পারবে বিআরটি বলে জানান মেয়র। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর উত্তরার জসীমউদ্দীন সড়কে ক্রেন দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে এ কথা বলেন ডিএনসিসি মেয়র। আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘রোড সেফটির জন্য যা যা আছে, আপনারা আমাদের সবকিছু দেবেন। শুধু এ প্রজেক্টই না, যতগুলো প্রজেক্ট ঢাকা শহরের মধ্যে চলছে, সব প্রজেক্টের জন্য আমাদের কাছে সবকিছু দেখাতে হবে। এখানে রোড সেফটি আছে, এয়ার পলুশন আছে। ইলেকট্রিক্যাল সেফটি আছে। অনেকগুলো বিষয় আছে।’ মেয়র বলেন, ‘বিআরটি যে কোম্পানিকে কাজ দিয়েছে, সেই কোম্পানি কিন্তু সবকিছু সাইন করে তারপর তারা সরকারের কাছ থেকে টাকা পাচ্ছে। সরকার সব টাকা দিচ্ছে। কিন্তু, এখানে খামখেয়ালিপনা হচ্ছে। এখানে খামখেয়ালীকে আমি সবচেয়ে বড় করে দেখছি।’ নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করলেই বিআরটি প্রকল্পের কাজ শুরু করতে পারবে বলেও জানিয়েছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম। গতকাল সোমবার বিকেলে উত্তরার জসিমউদ্দিন এলাকায় বিআরটি প্রকল্পের একটি গার্ডার ক্রেন দিয়ে তোলার সময় প্রাইভেটকারের ওপর পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেট কারে থাকা পাঁচজনের মৃত্যু হয়। যারমধ্যে দুজন শিশুও রয়েছে। জানা গেছে, গাড়িটিতে মোট সাতজন যাত্রী ছিলেন। এরমধ্যে দুই শিশু, দুই নারী ও একজন পুরুষ মারা গেছেন। শুধু বেঁচে আছেন নবদম্পতি—রিয়া আক্তার (১৯) ও রেজাউল করিম হৃদয় (২৬)। তাঁরা রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। নিহতরা হলেন—রুবেল (৫০), ঝর্ণা (২৮), ফাহিমা, জান্নাত (৬) ও জাকারিয়া (২)। তাদের মরদেহ রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার দিনগত মধ্যরাতে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করেছেন নিহত ফাহিমা আক্তার ও ঝর্না আক্তারের ভাই আফরান মণ্ডল বাবু। এতে ক্রেন পরিচালনাকারী চালক, প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও নিরাপত্তার দায়িত্বপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, রয়েছে অজ্ঞাত ব্যক্তিও






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply