Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২২ সহজ জয়ে বিশ্বকাপে উড়ন্ত সূচনা জিম্বাবুয়ের




আইরিশদের উড়িয়ে '৩১' রানের জয় জিম্বাবুয়ে ছবি- সংগৃহীত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে ওঠার লড়াইয়ে প্রথম রাউন্ডে গ্রুপ ‘বি’-এর ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৩১ রানের সহজ জয় পেয়েছে জিম্বাবুয়ে। হোবার্টের বেলেরিভে ওভালে এদিন টসে জিতে জিম্বাবুইয়ানদের আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় আইরিশ অধিনায়ক অ্যান্ডি বালবির্নি। সিকান্দার রাজার ঝড়ো ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৪ রান তোলে জিম্বাবুইয়ানরা। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে জিম্বাবুয়ের বোলারদের দাপটে ১৩৪ রান তুলতেই অলআউট হয়ে যায় আইরিশরা। জিম্বাবুয়ের ফিল্ডাররা একের পর এক ক্যাচ মিস না করলে আরও কম রানেই থামতো বালবির্নির দল। টসে জেতা আইরিশ অধিনায়কের ফিল্ডিং নেওয়ার সিদ্ধান্ত যথার্থই প্রমাণ করতে থাকেন আইরিশ বোলাররা। দ্রুতই জিম্বাবুয়ের টপ-অর্ডারদের প্যাভিলিয়নের পথ দেখান তারা। জিম্বাবুইয়ানরা এদিন প্রথম ওভারেই হারায় রানের খাতা খুলতে না পারা রেজিস চাকাভার উইকেট। অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিনও ৯ রানের বেশি করতে পারেনি। তিনে নেমে ওয়েসলি মাধভেরে ২২ এবং শন উইলিয়ামস ১২ রান করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন। এরপর মিল্টন শুম্বাকে নিয়ে ৫৮ রানের জুটি গড়েন রাজা। যেখানে শুম্বার অবদান মাত্র ১৬ রান। শেষ দিকের কোনো ব্যাটসম্যানও যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেনি রাজাকে। তবে একপ্রান্তে একাই ৪৮ বলে ৫টি করে চার-ছয়ে ৮২ রান করেন দুরন্ত ফর্মে থাকা রাজা। ইনিংসের শেষ বলে ফেরেন তিনি। আইরিশদের অক্ষে জসুয়া লিটল ২৪ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট শিকার করেন। এছাড়াও সিমি সিং ৩১ রানের বিনিময়ে নেন ২ উইকেট। মার্ক অ্যাডাইরও ২ উইকেট নেন ৩৯ রানের বিনিময়ে। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ২২ রান না তুলতেই ৪ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় আইরিশরা। এরপর মিডল অর্ডারে আইরিশ ব্যাটসম্যানরা কিছুটা চেষ্টা করলেও জিম্বাবুইয়ান বোলাররা নিয়মিত উইকেট তুলে নেওয়ায় সুবিধা করতে পারেনি দলটি। এক পর্যায়ে ১১১ রানের মধ্যে ৯ উইকেট হারিয়ে বেশ আগেই ম্যাচ হেরে যায় আইরিশরা। শেষ উইকেট জুটিতে জসুয়া লিটল এবং অ্যান্ডি ম্যাকার্থি অবিচ্ছিন্ন ৩২ রানের জুটি গড়ে কেবল ব্যবধানটাই কমান। ম্যাকার্থি ২২ রানে অপরাজিত থাকেন। আইরিশদের পক্ষে কার্টিস ক্যাম্পার সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন। এছাড়াও ডকরেল ও ডিলেনির ব্যাট থেকে আসে ২৪ রান করে। জিম্বাবুয়ের পক্ষে ব্লেসিং মুজারাবানি ২৩ রানে নেন ৩ উইকেট। এছাড়াও রিচার্ড এনগারাভা ও টেন্ডাই চাতারা ২টি করে উইকেট নেন। ব্যাট হাতে ৮২ রান করা রাজা বল হাতেও নেন ১ উইকেট। হয়েছেন ম্যাচসেরাও।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply