sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

মেহেরপুরে জন্মাষ্টমীর বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়।

মেহেরপুরে জন্মাষ্টমীর র্্যলী

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় গোসল শেষে বাসায় ফেরার পথে কিশোরিকে উঠিয়ে নিয়ে ধর্ষণ

গোসল শেষে বাসায় ফেরার পথে কিশোরিকে উঠিয়ে নিয়ে ধর্ষণ
১৩ বছরের কিশোরীকে হাত বেঁধে ধর্ষণ মামলা‌য় ধর্ষক জু‌য়েল ও তার সহ‌যো‌গী মিঠুন‌কে গ্রেফতার ক‌রে‌ছে কলাপাড়া থানা পু‌লিশ। এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার রাত আট টার দিকে কলাপাড়া পৌরশহরের নাচনাপাড়া এলাকায় বর্বর এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় কলাপাড়া থানায় ভিকটিমের বাবা মামলা করেন। . শুক্রবার সকালে ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী সদরে প্রেরণ করা হয়। মামলা ও ভিকটিম সূত্রে জানা গেছে, সারা দিনের কাজ শেষে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বাসায় ফিরে কিশোরীর বাবা নদীতে মাছ ধরতে যায়। ঐ কিশোরী বাড়ি থেকে দূরের এক পুকুরে গোসল করতে যায়। এসময় কিশোরী গোসল শেষে একা ঘরে ফেরার পথে অভিযুক্ত জুয়েল ও মিঠু ঐ কিশোরীকে একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে যায়। পরে হাত বেঁধে ধর্ষণ করে।

ধসে পড়ল স্কুলভবনের বিম, অল্পের জন্য রক্ষা পেলো শিক্ষার্থীরা

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার পশ্চিম বাউফল নূরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্লাস চলাকালীন হঠাৎ ছা‌দের বিম ভে‌ঙ্গে পর‌ে। এসময় শিক্ষার্থীরা আত‌ঙ্কিত হ‌য়ে প‌ড়ে। ত‌বে এঘটনায় কেউ আহত হয়‌নি। এ রকম ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান চলছে আরাইনাও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়েও। এ দুটি বিদ্যালয়ে রয়েছে চার কক্ষ বিশিষ্ট এক তলা ভবন, যা পাঠদানের অনুপযোগী। পশ্চিম বাউফল নূরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চার কক্ষ বিশিষ্ট একতলা ভবনটির সবচেয়ে ছোট কক্ষটি প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের কার্যালয় হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। বাকি তিনটি কক্ষ শ্রেণি কক্ষ হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। ভবনটির অধিকাংশ বিম ও পিলারে বড় আকারের ফাটল ধরেছে। বিম, পিলার ও ছাদের সুড়কি-পলেস্তরা খসে পড়ে রড বেরিয়ে রয়েছে। এরপরও ঝুঁকি নিয়ে পাঠদান চলছে ভবনটিতে। ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাধবী রানী বলেন, বৃহস্পতিবার অল্পের জন্য শিশু শিক্ষার্থীরা দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। প্রধান শিক্ষক সারমিন সুলতানা শামিমা বলেন, ‘বিদ্যালয়টিতে দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী আছে। পুরো বর্ষা মৌসুমেই ছাদ চুইয়ে পানি পড়েছে। অন্য কোন ভবন না থাকায় বৃষ্টি হলেই পাঠদান বিঘ্নিত হয়। এখন আবার ভবনের বিম ও ছাদের সুড়কি ভেঙ্গে পড়ছে ও পলেস্তরা খসে পড়ছে। ভয়ে শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে আসতে চাচ্ছে না। আর অভিভাবকরাও তাদের সন্তানদের বিদ্যালয়ে পাঠাতে ভয় পাচ্ছেন। এ কারণে দিন দিন শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কমে যাচ্ছে।’ উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ রিয়াজুল হক বলেন, ‘সরেজমিনে দেখেছি বিদ্যালয় দুটির ভবন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই বিকল্প টিনশেড তৈরি করে পাঠদানের ব্যবস্থা করা হবে।’

পাকিস্তানের মাটিতে ওয়ানডে খেলবে শ্রীলঙ্কা

একটা পূর্ণাঙ্গ সিরিজের জন্য শ্রীলঙ্কার দিকে চাতক পাখির মতো তাকিয়ে ছিল পাকিস্তান। সরাসরি কিছু না বলে পরিস্থিতি ঘোলাটে করে রেখেছিল লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড। অবশেষে সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে তারা। পূর্ণাঙ্গ নয়, পাকিস্তানের মাটিতে কেবল তিন ওয়ানডে খেলার ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছে ম্যাথুজদের বোর্ড। ‘দুই টেস্ট খেলতে পাকিস্তানে দল পাঠানোর মতো অবস্থানে নেই আমরা। তবে আটদিনের মধ্যে তিন ওয়ানডে কিংবা টি-টুয়েন্টি খেলা সম্ভব।’ বৃহস্পতিবার সংবাদ মাধ্যমের কাছে পাকিস্তানে খেলতে যাওয়ার বিষয়টি এভাবেই নিশ্চিত করেছেন শ্রীলঙ্কান ক্রীড়ামন্ত্রী হারিন ফার্নান্দো। কোনো নির্দিষ্ট সময়সূচি ঠিক না হলেও বছরের শেষভাগে হতে পারে ওয়ানডে সিরিজটি। আর টেস্ট দুটি আরব আমিরাতে খেলতে চায় শ্রীলঙ্কা। দুধের স্বাদ ঘোল দিয়ে মেটানোর মতো করে আপাতত তাতেই রাজী হতে হচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে (পিসিবি)। তাতে ভেস্তে যাচ্ছে ২০০৯ সালের পর দেশের মাটিতে টেস্ট খেলার স্বপ্ন। রাজী না হয়েও আসলে উপায় নেই পাকিস্তানের। শ্রীলঙ্কা তাদের পরীক্ষিত বন্ধু। তাইতো ২০০৯ সালে লাহোরে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েও বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল দলটি। ২০১৭ সালে খেলে এসেছে টি-টুয়েন্টি। নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে যেখানে বাকি দেশগুলো পাকিস্তানকে এড়িয়ে যাচ্ছে, সেখানে লঙ্কানরা ওয়ানডে খেলতে রাজী হয়েছে তাতে অল্প করে হলেও মুখে হাসি ফুটবে পিসিবির।

ম্যানইউতে ‘বলির পাঠা’ ‍লুকাকু-পগবা-সানচেজ!

অনেক আলোচনা-সমালোচনা ও তর্ক-বিতর্কের পর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছেড়ে ইন্টার মিলানে চলে গেছেন রোমেলু লুকাকু। ক্লাব ছাড়াছাড়ির রশির উপর দাঁড়িয়ে আছেন পগবা। আরেক স্ট্রাইকার অ্যালেক্সিস সানচেজও এক পা দিয়ে রেখেছেন ম্যানইউ’র দরজার বাইরে। ক্লাব ছাড়ার এই মিলের সঙ্গে তিনজনের আরও একটি মিল আছে। কী সেটা? লুকাকু বলছেন, তারা তিনজনই ম্যানইউতে ‘বলির পাঠা’। এভারটন থেকে যোগ দেয়ার পর দুই মৌসুম কাটিয়ে এই মৌসুমেই অ্যান্থনিও কন্তের ইন্টারে নাম লিখিয়েছেন লুকাকু। এখন সময় নতুন ‘চ্যালেঞ্জ নেয়ার’, সম্প্রতি এমন মন্তব্যের পর পগবার ভবিষ্যতও অস্পষ্ট। ইএসপিএন এফসি জানাচ্ছে, লুকাকুর পর সানচেজকেও দলে টানতে চায় ইন্টার। এতসব কানাঘুষার মধ্যে লুকাকুর ‘বলির পাঠা’ মন্তব্য ম্যানইউতে পগবা-সানচেজকে নিয়ে বাড়তি অনিশ্চয়তা যোগ হয়েছে। ২০১৮-১৯ মৌসুমটা মোটেই ভালো যায়নি ম্যানইউর। লুকাকু বলছেন, কঠিন মৌসুমে তারা তিনজনই ছিলেন দোষ দেয়ার মূল টার্গেটে। বেলজিয়াম তারকার কথায়, ‘তাদের (ম্যানইউ) দোষ দেয়ার জন্য কাউকে খুঁজতে হত। যার টার্গেট হই পগবা, আমি ও অ্যালেক্সিস।’ দোষারোপের টার্গেটে পড়ে ম্যানইউতে ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত দেখেই অন্য পথ ধরেন লুকাকু। ২৬ বছরের এই তারকা বলছেন ম্যানইউতে সুরক্ষার অভাব দেখেই ক্লাব ছেড়েছেন তিনি। ‘স্টাফদের অনেকেই নানা জনের কাছে বলত, সে রোমের দিকে যাক, তাকে আর দরকার নেই ক্লাবে। এটা প্রায় কয়েক সপ্তাহ ধরেই চলছিল। অপেক্ষায় ছিলাম, কেউ একজন এসে এটা বন্ধ করুক। কিন্তু আমার চাওয়া মতো তেমন কিছুই ঘটেনি। এরপরই সরাসরি বলেছি, আমি আসলে কী করতে চাই। বলা কথাগুলোর মধ্যে অন্যতম ছিল, ক্লাব ও আমার আলাদা পথ খোঁজা উচিত।’ চলতি মৌসুমে যে অ্যান্থনি কন্তের অধীনে খেলবেন, সেই কন্তেকে সম্প্রতি ‘বিশ্বের সেরা ম্যানেজার’ হিসেবে মন্তব্য করেছেন লুকাকু। এভারটনের সাবেক তারকা এও বলেছেন, গত ছয় বছরে তাকে বেশ কয়েকবারই দলে নিতে চেয়েছিলেন কন্তে। ‘কন্তে আমাকে ২০১৩ সালে জুভেন্টাসে থাকাকালীন সময়েও চেয়েছিলেন। আমাদের মধ্যে সত্যিই ভালো সম্পর্ক রয়েছে, আমাদের এজেন্টও এক। তার খেলার স্টাইল, তার দলের জন্য, আমাকে তার দরকার ছিল।’

প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে অমীমাংসিত বিষয়গুলোর মীমাংসা হবে: কাদের

  প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে অমীমাংসিত বিষয়গুলোর মীমাংসা হবে: কাদের অক্টোবরে প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে অমীমাংসিত বিষয়গুলোর মীমাংসা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন: বর্তমান সরকারের সময়ে প্রতিবেশি দেশ ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক এক নতুন উচ্চতায় উত্তীর্ণ হয়েছে। আমরা আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবো বলে আমি বিশ্বাস করি। শুক্রবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালযয়ের পলাশীর মোড়ে মহানগর সার্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটির উদ্যোগে কেন্দ্রীয় জন্মাষ্টমী উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত মিছিলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন: আমাদের সরকারের সময়ই ভারতের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক একটি নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অক্টোবরে আমাদের প্রধানমন্ত্রীকে দিল্লি সফরের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। সফরে ভারতের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক আর এক ধাপ উন্নয়ন হবে। অমীমাংসিত বিষয়গুলো মীমাংসার ক্ষেত্রে আমরা এগিয়ে যাব বলে আমি বিশ্বাস করি। এসময় আওয়ামী লীগ সরকারকে সংখ্যালঘু বান্ধব সরকার দাবি করে দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন: শেখ হাসিনার সরকার মাইনোরিটি বান্ধব সরকার। শেখ হাসিনার সরকার যতদিন আছে আপনাদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ নেই। যখনই শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় থাকে তখন আপনারা শান্তিতে ধর্মীয় অনুষ্ঠানগুলো উদযাপন করতে পারেন এবং আপনারা নিরাপদ হন। তিনি আরও বলেন: আপনাদের শত্রু বাংলাদেশের শত্রু। তারা সাম্প্রদায়িক অপশক্তি। এ সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিষবৃক্ষ উৎপাটনের জন্য কৃষ্ণের জন্মদিনে আপনাদের কাছে আমার আহ্বান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আপনারা শক্তিশালী করুন। আসুন ঐক্যবদ্ধ হয়ে সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে আমরা প্রতিহত করি। শ্রীকৃষ্ণের জন্মদিনে হিন্দু সম্প্রদায়ের সকলকে শুভেচ্ছাও জানান ওবায়দুল কাদের।

সাতক্ষীরার কালিয়ানি সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে ৫ বাংলাদেশি আহত

বিএসএফের গুলিতে ৫ বাংলাদেশি আহত
র ওপারে ভারতের দুবলি এলাকায় বিএসএফের গুলিতে অন্তত পাঁচ বাংলাদেশি আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) ভোরে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় কয়েকটি গরুর গায়েও গুলি লেগেছে বলেও জানা গেছে। স্থানীয়রা জানান, ভারত থেকে চোরাই পথে গরু আনতে একদল রাখাল চোরাই ভারতের দুবলি এলাকায় যায়। ভোরে গরু নিয়ে ফেরার পথে বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এ সময় আহত হন সাতক্ষীরার কুশখালির মফিজুল ইসলাম, হায়দর আলি, আজিবর রহমান, আমিনুল ইসলাম ও পুটের জামাতা। তারা সবাই দেশে ফিরে এলেও আহত আরও কয়েকজনের খোঁজ পাওয়া যায়নি। স্থানীয়রা আরও জানান, কুশখালি খাটালে আনা হয় ১১২টি ভারতীয় গরু। পাচার হওয়া অনেকগুলো গরুর দেহে গুলির ছররা রয়েছে। এ ব্যাপারে বিজিবির সাতক্ষীরাস্থ ৩৩ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে. কর্নেল গোলাম মহিউদ্দিন খোন্দকার বিএসএফের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমকে জানান, তারা কোনো গুলি ছোড়েনি। তবে গরু পাচারকারীদের ধাওয়া করে কয়েকজনকে আটক করেছে। আটকরা ভারতীয় না বাংলাদেশি তা তিনি নিশ্চিত করতে পারেননি। তিনি আরও বলেন, কোনো গরুর গায়ে গুলির ছররা লাগার তথ্য তার কাছে নেই।