sponsor

sponsor

Slider

আন্তর্জাতিক

জাতীয়

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

Facebook Like Box

» » মাহমুদুল্লাহর ফেরার ম্যাচে সেন্ট কিটসের জয়




ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) একম্যাচ পরই জয়ে ফিরলো সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস। সেই সঙ্গে জয়ী ম্যাচে দলে ফিরেছেন বাংলাদেশের মাহমুদুল্লাহ রিয়াদও।
রোববার ত্রিনিদাদের পোর্ট অফ স্পেইনের কুইন্স পার্ক ওভালে টসে হেরে ব্যাট করতে নামে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২০৩ রান সংগ্রহ করে ক্রিস গেইলের নেতৃত্বাধীন সেন্ট কিটস।

ব্যাটিংয়ে শুরুটা যদিও ছিল দুঃস্বপ্নের মতো। প্রথম ওভারে ৩ রানের মধ্যেই এভিন লুইস ও টম কুপারের উইকেট হারিয়েছিল প্যাট্রিয়টস। সেখান থেকে দলকে ৬৯ পর্যন্ত টানেন অধিনায়ক গেইল ও ডেভন থমাস। গেইল ৩০ বলে ৩ ছক্কা ও এক চারে ৩৫ রান করে ফিরলে ভাঙে ৬৬ রানের এ জুটি।
থমাস দলের পক্ষে সর্বোচ্চ  ৩৪ বলে ৯ চার ও ১ ছক্কায় ৫৯ রান করেন। শেষ দিকে কার্লোস ব্রাফেটের ১৫ বলে ৫ ছক্কা ও এক চারে ৪১ রানের ক্যামিওতে দুইশ ছাড়ানো পুঁজি পায় প্যাট্রিয়টস। বাংলাদেশি তারকা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ১০ বলে ১৬ রান করে সুনীল নারাইনের বলে বোল্ড আউট হয়ে সাজঘরে ফিরে যান।

বড় লক্ষ্য তাড়ায় তৃতীয় বলেই নারাইনের উইকেট হারায় ত্রিনবাগো। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানোয় কখনো জয়ের সম্ভাবনাই জাগাতে পারেনি তারা। ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে করতে পারে ১৬১ রান।
২২ বলে ৪ ছক্কা ও ২ চারে সর্বোচ্চ ৪২ রানে অপরাজিত ছিলেন কুপার। এ ছাড়া ড্যারেন ব্রাভো ৪১ ও কলিন মানরো করেন ৩৫ রান।
ষষ্ঠ ওভারে বোলিংয়ে এসে মাত্র ৫ রান দেয়া মাহমুদুল্লাহকে গেইল পরে কেন আর বোলিংয়ে আনলেন না, সেটা রহস্যই। নেপালের স্পিনার সন্দীপ লামিচানে তার প্রথম ২ ওভারে ৩ রানে ১ উইকেট পেলেও তাকেও শেষ ওভারের আগে আর বল দেননি প্যাট্রিয়টস অধিনায়ক। ব্রাফেট, বেন কাটিং ও জেরেমিহা লুইস নেন ২টি করে উইকেট।
চলতি সিপিএলে এটি ছিল সেন্ট কিটসের দ্বিতীয় ম্যাচ। প্রথম ম্যাচে গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিওরসের কাছে ৬ উইকেটে হেরেছিল দলটি। মাহমুদুল্লাহদের তৃতীয় ম্যাচ জ্যামাইকা তালাওয়াসের বিপক্ষে ১৫ আগস্ট।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply