sponsor

sponsor

Slider

আন্তর্জাতিক

জাতীয়

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

Facebook Like Box

» » শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রাখতেই নির্বাচন কমিশন যাবতীয় কার্যক্রম চালাচ্ছে: বিএনপি


বাংলাদেশের প্রধান বিরোধী দল বিএনপি অভিযোগ করেছে, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন এবং আওয়ামী লীগ সবসময় বিপরীত পথে হাঁটে। শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রাখতেই নির্বাচন কমিশন যাবতীয় কার্যক্রম চালাচ্ছে।

আজ শনিবার সকালে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন,  আওয়ামী লীগের কাছে  সংলাপ, সুষ্ঠু নির্বাচন, তফসিল ঘোষণা সবই তামাশার নামান্তর মাত্র। এইজন্য আগামী নির্বাচনকে প্রতিদ্বন্দ্বীতামূলক করার বা নির্বাচনী মাঠ সমতল করার কোনো গরজ বর্তমান নির্বাচন কমিশনের নেই। আর সেজন্যই শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রাখার স্বার্থে একতরফা নির্বাচনের জন্য তাড়াহুড়ো করে কমিশন তফসিল ঘোষণা করেছে।

রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগ কখনোই প্রতিযোগিতামূলক অবাধ নির্বাচনে বিশ্বাস করে না। নিজেদের স্বার্থে যখন যেমন  ইচ্ছা তাই তারা করতে পারে। তারাই তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থার জন্য আন্দোলন করেছে, আবার তারাই সংবিধান থেকে সেটি মুছে দিয়েছে। কোনো আধুনিক সভ্য রাজনৈতিক দল একের পর এক প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে বখাটের মত আচরণ করতে পারে না। এই যে জনমতকে তাচ্ছিল্য করা, এর মধ্য দিয়েই প্রমাণিত হয়- সেই পতিত  বাকশাল ফিরিয়ে আনার যতো আয়োজন করা হচ্ছে।

বিএনপি’র এ নেতা  বলেন, ইতোমধ্যে নির্বাচন নিয়ে সংলাপের নামে সরকারি প্রতারণায় দেশবাসী বিস্মিত ও হতবাক। সরকারের সর্বোচ্চ ব্যক্তি কিভাবে প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেন! পাঁচ জানুয়ারির একতরফা নির্বাচনের সময় তারাই বলেছিল এটি নিয়ম রক্ষার নির্বাচন শীঘ্রই তারা সবাইকে নিয়ে একটি  গ্রহনযোগ্য নির্বাচন করবে। সেটা তারা করে নি।

রিজভী  বলেন, অবৈধ ক্ষমতা দখলকারীরা জনগণের দাবি মানছে না। ৭ দফা দাবিকে অগ্রাহ্য করেই একতরফা নির্বাচনের পথে এগিয়ে যাচ্ছে তারা। চিরস্থায়ীভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্যই বিরোধী দল দমনের কাজে আইন-শৃঙ্খলাবাহীনিকে দিয়ে  মিথ্যা মামলা- গ্রেফতার, গুম, গুপ্তহত্যাসহ ক্রসফায়ারের মতো বেআইনী কর্মকাণ্ড চালানো হচ্ছে ।

তিনি আরো বলেন, দুর্বৃত্ত  সরকার জনগণকে ভয় পায় বলেই দেশের বিপুল জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দী করে রেখেছে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকেও বানোয়াট মামলায় সাজা দেয়া হয়েছে।

ঐক্যফ্রন্টের সাথে সংলাপে প্রধানমন্ত্রী যেদিন বলেছিলেন- ‘নতুন মামলা দেয়া হবে না ও গ্রেফতার করা হবে না’, ঠিক সেই রাত থেকেই আরও বেশী মামলা ও গ্রেফতার শুরু হয়েছে।

এমনকি সিইসি তফসিল ঘোষণার সময় বলেছেন-বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার হয়রানি না করতে, রাজনৈতিক মামলা না দিতে, কিন্তু শুধু গতকালই বিরোধী দলের ৩ শতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দায়ের হচ্ছে নতুন নতুন মামলাও। বিএনপি নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি তল্লাশি চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

গত ৫ নভেম্বর থেকে এ পর্যন্ত ২৫০০ জনের অধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানান রিজভী। তিনি বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে গ্রেফতারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত বানোয়াট ও অসত্য মামলা প্রত্যাহারসহ নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করেন।#

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply