sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

নির্বাচন

জাতীয়

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » কানাডায় হুয়াইও’র শীর্ষ নির্বাহী আটক

কানাডায় চীনের বৃহৎ মোবাইল কোম্পানী হুয়াইও’র শীর্ষ কর্মকর্তা ও এর প্রতিষ্ঠাতার মেয়েকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার কর্মকর্তারা একথা বলেন। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চীনের বাণিজ্যযুদ্ধের উত্তেজনা কমানোর ঘোষণার মাত্র কয়েকদিনের মধ্যে গ্রেফতারের ঘটনাটি ঘটল। এতে পরিস্থিতি আবারো উত্তপ্ত হয়ে উঠবে বলে আশংকা করা হচ্ছে। ইরানের সাথে হুয়াইওয়ের সন্দেহজনক আর্থিক লেনদেনের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে মার্কিন কর্তৃপক্ষ একটি তদন্ত শুরু করেছে। এই তদন্ত শুরুর পর হুয়াইওর প্রধান ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার মেং ওয়ানঝৌয়েলকে আটক করা হয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র। মেংয়ের এই আটকের খবরে এশিয়ার শেয়ার বাজারে প্রভাব ফেলেছে। বিশেষ করে সাংহাই ও হংকংয়ে শেয়ার বাজারে দরপতন ঘটেছে। সাংহাইয়ে ১.৩ শতাংশ ও হংকংয়ে ২.৬ শতাংশ দরপতন ঘটেছে। ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধের সাথে এই গ্রেফতারের সংশ্লিষ্টতার ব্যাপারে মার্কিন সিনেটর বেন সাসে এক বিবৃতিতে বলেন, ‘চীন আমাদের জাতীয় নিরাপত্তা স্বার্থ বিঘিœত করতে সুকৌশলে কাজ করছে। এ অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা নিরব দর্শক হয়ে বসে থাকতে পারে না।’ কানাডার বিচার মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, মেংকে ১ ডিসেম্বর পশ্চিমাঞ্চলীয় নগরী ভেঙ্কুবার থেকে গ্রেফতার করা হয়। মন্ত্রণালয় আরো জানায়, কানাডার প্রতি যুক্তরাষ্ট্র মেংকে হস্তান্তর করতে বলেছে। শুক্রবার তার জামিনের শুনানী হবে। মেং এর বাবা ঝেংফেই চীনের পিপলস’ লিবারেশন আর্মির সাবেক প্রকৌশলী ছিলেন। আর্জেন্টিনায় এক বৈঠকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের মধ্যে যে দিন বাণিজ্য যুদ্ধ বন্ধের চুক্তি করেছেন সেই দিনই মেংকে গ্রেফতার করা হয়। এদিকে অটোয়ার চীনা দূতাবাস মেংয়ের মুক্তি দাবি করেছে। দূতাবাস থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘চীন এই ঘটনার তীব্র বিরোধিতা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে। এ ধরনের পদক্ষেপ আটককৃতের মানবিক অধিকারের গুরতর লংঘন।’ এদিকে হুয়াইও এক বিবৃতিতে জানায়, ‘হুয়াইও কোম্পানি জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের রপ্তানী নিয়ন্ত্রণ ও অবরোধ আইনসহ সকল বিদ্যমান আইন মেনেই ব্যবসা পরিচালনা করে।’ ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, এপ্রিল মাসে যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ হুয়াইও ইরানের ওপর অর্থনৈতিক অবরোধ লংঘন করছে সন্দেহ করে একটি তদন্ত শুরু করে।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply