sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

নির্বাচন

জাতীয়

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » একটু বেশি জোর দিচ্ছি ডেথ বোলিংয়ে: রুবেল


আগামী ৯ ডিসেম্বর রোববার থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরু হচ্ছে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। তার আগে বৃহস্পতিবার বিকেএসপিতে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নামছে বাংলাদেশ একাদশ। এই ম্যাচ দিয়ে ২২ গজে ফিরছেন তামিম ইকবাল। গেল সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে হাতের ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়েছিলেন এই ওপেনার। কয়েকদিন আগেই প্রস্তুতি ম্যাচের স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়। মাশরাফি নেতৃত্বাধীন দলটিতে রয়েছেন রুবেল হোসনও। 
বুধবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন রুবেল।
দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইট করেছে বাংলাদেশ। সফরকারীদের চার ইনিংসের ৪০টি উইকেটই তুলে নেন স্পিনাররা। প্রথম ম্যাচেতো চার স্পিনারের বদলে একজন পেসার সুযোগ পেয়েছিলেন। তবে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে পেসার ছাড়াই মাঠে নামে টাইগাররা। 
টেস্টে স্পিনাররা ভালো করায় বাড়তি চাপ আছে নাকি? এমন প্রশ্নের জবাবে রুবেল বলেন, না আসলে আমাদের পরিস্থিতিটা ওরকম ছিল। আমাদের উইকেটটা ওইভাবে তৈরি করা ছিল, স্পিনারদের ফেভারেই। আর অবশ্যই, স্পিনাররা যখন ভালো করে, পেস বোলাররা খেলতে পারছে না, এটা একটু দুঃখজনক। 
যদিও ডান হাতি এই পেসার আশা প্রকাশ করেছেন ওয়ানডের দৃশ্যপটটি ভিন্ন। আর তাই উইকেটও থাকবে অন্যরকম। এ নিয়ে তিনি বলেন, আমার কাছে মনে হয় ওয়ানডেতে এমন হবে না, ওয়ানডেতে একটু ভিন্ন ধরনের হবে। উইকেটে ওইভাবে স্পিন থাকবে না। আমার কাছে মনে হয় না ওরকম হবে। 
বাংলাদেশের পেসাররা ওয়ানডে জেতানোর ক্ষমতা রাখে এমন প্রশ্ন সামলে এলে ২৮ বছর বয়সী এই তারকা বলেন, অবশ্যই ক্ষমতা রাখে এবং ওয়ানডে জিতিয়েছেও পেস বোলাররা, আপনি যদি দেখেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরেও। এই কন্ডিশনেও অবশ্যই জেতাতে পারবে, ওয়ানডেতে উইকেট স্পিন সহায়ক থাকবে না, যেভাবে টেস্টে ছিল। আর আমাদের যেই পেস বোলাররা আছে, এই কন্ডিশনে অবশ্যই ম্যাচ জেতাতে পারবো।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর ও এশিয়া কাপে দুর্দান্ত বোলিং করেছিলেন রুবেল যদিও অসুস্থতার কারণে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ছিটকে পড়েন রুবেল। সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স প্রসঙ্গে তিনি বলেন, লাস্ট দুই তিনটা সিরিজ আমি খুব ভালো রিদমে আছি। আমি যদি সুযোগ পাই আমি আমার বেস্ট ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করবো, যেটা সবসময় করি। 
এশিয়া কাপে ডেথ ওভারের অসাধারণ বোলিং করেছিলেন। এ নিয়ে রুবেল বলেন, আমি নয় বছর ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট খেলছি, অবশ্যই একটু অভিজ্ঞতা হয়েছে। তারপর অনেক কষ্ট করছি ডেথ ওভারের বোলিং নিয়ে। কারণ আমার মেইন স্ট্রেন্থ হচ্ছে আমার ডেথ বোলিং। কারণ আমাকে ডেথে বল করতেই হবে। এমন সিচুয়েশনে বল করি যেখানে ম্যাচ জেতানোও যায় আবার ম্যাচ হেরেও যায়। যার কারণে আমাকে আরও বেশি ফোকাস রাখতে হয়। এখন একটু বেশি জোর দিচ্ছি ডেথ বোলিংয়ে। 
উইন্ডিজের কোন ব্যাটসম্যান ভাবাচ্ছে এমন প্রশ্নের জবাবে রুবেল বলেন, আসলে ওই ধরনের কোনো কিছু করি নাই। কারণ প্রত্যেকটা ব্যাটসম্যানকে নিয়েই আমাদের দেখতে হয়। আমাদের ভিডিও অ্যানালিস্ট আছে, সে সবার ভিডিও দিয়ে দেয়।ওইরকম আলাদা ভাবে কাউকে দেখার হয় নাই। ওদের টিমে সবাই তো মেইনলি স্ট্রোক খেলতে পছন্দ করে। আমাদের এটাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিতে হবে।
বিসিবি একাদশ 
মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, তৌহিদ হৃদয়, আরিফুল হক, আকবর আলী, রুবেল হোসেন, মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী, শাহীন আলম, মেহেদী হাসান রানা, নাজমুল ইসলাম অপু।


«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply