sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » আর্জেন্টিনায়ও সংক্রমণ লাখ ছাড়াল, বিপাকে লাতিন আমেরিকা




আর্জেন্টিনায়ও সংক্রমণ লাখ ছাড়াল, বিপাকে লাতিন আমেরিকা


প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস ভয়াবহ তাণ্ডব চালাচ্ছে লাতিন আমেরিকার দেশগুলোতে। যার সবচেয়ে ভুক্তভোগী ব্রাজিল। এবার আর্জেন্টিনায়ও সংক্রমণ লাখ ছাড়িয়েছে। ভাল নেই এ অঞ্চলের অন্যান্য দেশগুলোও। 

বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যমতে, দক্ষিণ আমেকিরায় এখন পর্যন্ত ২৮ লাখ ৯৫ হাজার ৬১১ জন মানুষ করোনার শিকার হয়েছেন। এর মধ্যে প্রাণ ঝরেছে ১ লাখ ৫ হাজারের বেশি মানুষের। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৮ লাখ ৭৪ হাজারের বেশি রোগী। 

সংক্রমণ লাখ ছাড়িয়েছে ব্রাজিল, পেরু, চিলি ও কলম্বিয়ায়। আর সবশেষ এ তালিকায় যুক্ত হলো আর্জেন্টিনা। 

যেখানে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ১৬৬ জনের দেহে হানা দিয়েছে ভাইরাসটি। তবে, এ অঞ্চলের অন্যান্য দেশের তুলনায় এখানে প্রাণহানি অনেকটা কম। যার সংখ্যা ১ হাজার ৮৪৫ জন। আক্রান্তদের মধ্যে প্রায় ৪৩ হাজার রোগী সুস্থতা লাভ করেছেন। 

দক্ষিণ আমেরিকায় মোট আক্রান্ত ও প্রাণহানির অধিকাংশই ব্রাজিল, পেরু, চিলি, কলম্বিয়া, ইকুয়েডর ও আর্জেন্টিায়। 

এর মধ্যে সবচেয়ে সংকটাবস্থায় থাকা ব্রাজিলে আক্রান্ত ১৮ লাখ ৬৬ হাজারের বেশি। আক্রান্তদের মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ৭২ হাজারের বেশি মানুষ। যদিও অর্ধেকের বেশি ভুক্তভোগী সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন। 

এরপরই পেরু। যেখানে ৩ লাখ ২৬ হাজারের বেশি মানুষ করোনার শিকার। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১১ হাজার ৮৭০ জনের।  

সংক্রমণে এ অঞ্চলের তিনে থাকা চিলিতেও আক্রান্ত ৩ লাখ ১৫ হাজার ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে ৬ হাজার ৯৭৯ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা। 

এরপরই কলম্বিয়া। যেখানে এখন পর্যন্ত দেড় লাখ মানুষের দেহে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৩০৭ জনের। 

ইকুয়েডরে সংক্রমণ ৬৮ হাজার ছুঁই ছুঁই। তবে প্রাণহানি একটু বেশি। এই মুহূর্ত পর্যন্ত সেখানে ৫ হাজার ৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থতা লাভ করেছেন অর্ধেকের বেশি মানুষ রোগী। এছাড়া, অনেকটা নিয়ন্ত্রণে বলিভিয়া, ভেনেজুয়েলা, ফ্রেন্স গুইয়ানা, প্যারাগুয়ে, উরুগুয়ে ও গায়ানার মতো দেশগুলোতে। 

এমন অবস্থায় লাতিন আমেরিকার দেশগুলো কার্যকরি ভ্যাকসিন কিংবা টিকার অপেক্ষায় দিনগুনছে। যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে, তাতে অবস্থা আরও সংটময় হতে পারে। 






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply