sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক




 সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক
 
মারা গেলেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের সভাপতির মণ্ডলীর সদস্য ও সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন। ইন্নাইলাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় ব্যাংককের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

অবশেষে মৃত্যুর কাছে থেমে যেতে হলো আওয়ামী লীগ নেত্রী সাহারা খাতুনকে৷ দীর্ঘদিন নানান রোগব্যাধির সাথে যুদ্ধে বৃহস্পতিবার রাতে পৃথিবী ছাড়লেন তিনি।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত নানান জটিলতায় ভুগছিলেন ৭৭ বছর বয়সী এই নারী রাজনীতিক৷ অ্যালার্জি জনিত সমস্যা নিয়ে গেলো ২ জুন রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা তাকে৷ তারপর থেকেই অবস্থার অবনতি ঘটে তার। কয়েকদফা আইসিইউ'তে চিকিৎসা দেয়ার এক পর্যায়ে গত ৬ জুলাই এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ এক শোক বার্তায় সরকার প্রধান বলেন, বিশ্বস্ত ও পরীক্ষিত সহযোদ্ধা হারিয়েছেন তিনি৷ আর জাতি হারালো এক দক্ষ ও সৎ নারী নেত্রীকে।

ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতি সম্পৃক্ত সাহারা খাতুন সবশেষ নির্বাচনেও ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন৷ এ আসনে পরপর তিনবার নির্বাচিত হন। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পান তিনি। পরে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন।

 
মারা গেলেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের সভাপতির মণ্ডলীর সদস্য ও সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন। ইন্নাইলাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় ব্যাংককের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

অবশেষে মৃত্যুর কাছে থেমে যেতে হলো আওয়ামী লীগ নেত্রী সাহারা খাতুনকে৷ দীর্ঘদিন নানান রোগব্যাধির সাথে যুদ্ধে বৃহস্পতিবার রাতে পৃথিবী ছাড়লেন তিনি।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত নানান জটিলতায় ভুগছিলেন ৭৭ বছর বয়সী এই নারী রাজনীতিক৷ অ্যালার্জি জনিত সমস্যা নিয়ে গেলো ২ জুন রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা তাকে৷ তারপর থেকেই অবস্থার অবনতি ঘটে তার। কয়েকদফা আইসিইউ'তে চিকিৎসা দেয়ার এক পর্যায়ে গত ৬ জুলাই এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ এক শোক বার্তায় সরকার প্রধান বলেন, বিশ্বস্ত ও পরীক্ষিত সহযোদ্ধা হারিয়েছেন তিনি৷ আর জাতি হারালো এক দক্ষ ও সৎ নারী নেত্রীকে।

ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতি সম্পৃক্ত সাহারা খাতুন সবশেষ নির্বাচনেও ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন৷ এ আসনে পরপর তিনবার নির্বাচিত হন। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পান তিনি। পরে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply