sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » টিকটক কিনতে কথাবার্তা চালাচ্ছে মাইক্রোসফট, দাবি মার্কিন সংবাদমাধ্যমের




টিকটক কিনতে কথাবার্তা চালাচ্ছে মাইক্রোসফট, দাবি মার্কিন সংবাদমাধ্যমের

সোমবারের মধ্যে দুই সংস্থার আর্থিক লেনদেন সম্পূর্ণ হয়ে যেতে পারে বলে মনে করছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম।
আমেরিকায় চিনা অ্যাপ টিকটকের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করতে চলেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই আবহের মধ্যেই টিকটকের আমেরিকা শাখা কিনতে উদ্যোগী হয়েছে বিশ্ববিখ্যাত তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা মাইক্রোসফট। এমনটাই জানা গিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ‘ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল’ জানাচ্ছে, টিকটকের মার্কিন অপারেশনসের সঙ্গে কথাবার্তা চালাচ্ছে মাইক্রোসফট। শুক্রবার রাতে এ নিয়ে একটি রিপোর্টও প্রকাশ করে তারা। তাতে লেখা হয়েছে, দু'টি সংস্থার মধ্যে চূড়ান্ত পর্যায়ে আলোচনা চলছে। এই আর্থিক লেনদেন কোটি কোটি ডলারের হবে বলেই ধারণা ওই সংবাদমাধ্যমটির। ‘ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল’ বলছে, ‘‘ মাইক্রোসফট, বাইটড্যান্স এবং হোয়াইট হাউসের প্রতিনিধিদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। বিভিন্ন  সূত্রে জানা গিয়েছে, দুই সংস্থার মধ্যে এই আর্থিক লেনদেন সোমবারের মধ্যে সম্পূর্ণ হয়ে যেতে পারে।’’ তবে দুই সংস্থার মধ্যে আলোচনা ফলপ্রসূ না হলে চুক্তি বাতিল হয়ে যেতে পারে বলেও জানিয়েছে ওই সংবাদমাধ্যমটি। প্রসঙ্গত, চিনা সংস্থা বাইটড্যান্সের অধীনে রয়েছে টিকটক।


সম্প্রতি ওই চিনা ভিডিয়ো অ্যাপ নিয়ে মুখ খুলেছেন চিনা বিদেশ সচিব মাইক পম্পেয়ো। তাঁর অভিযোগ, মার্কিন নাগরিকদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিচ্ছে টিকটক। এ নিয়ে বলতে গিয়ে ভারতে টিকটক নিষিদ্ধ হওয়ার প্রসঙ্গও তুলে ধরেছেন তিনি। এর মধ্যেই শুক্রবার ট্রাম্প বলেন, আমেরিকায় টিকটক নিষিদ্ধ হতে চলেছে।


Powered By PLAYSTREAM
টিকটককে তাদের মূল সংস্থা বাইটড্যান্স থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার প্রস্তাবও দেওয়া হতে পারে, এমন গুঞ্জনও ছড়িয়ে পড়েছিল। মার্কিন সংবাদপত্র ‘নিউইয়র্ক টাইমস’ বলছে, মার্কিন যুক্তরাষ্টে বিদেশি বিনিয়োগ খতিয়ে দেখার জন্য যে কমিটি রয়েছে তারা ২০১৭ সালে বাইটড্যান্সের ভিন্ন একটি সংস্থা কেনার নথিপত্র দেখছে। ওই সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, টিকটক থেকে বিনিয়োগ তুলে নেওয়ার জন্য চিনা সংস্থা বাইটড্যান্সকে নির্দেশ দেওয়া হতে পারে। কারণ, হোয়াইট হাউস দৃঢ় ভাবেই মনে করছে, চিনা মালিকানায থাকার দরুণ টিকটক জাতীয় নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বড়সড় চিন্তার কারণ হয়ে উঠতে পারে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply