sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » মাদক সংক্রান্ত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকাই!




মাঝে আর একটা রাত। আগামিকাল অর্থাৎ শনিবারই মাদককাণ্ডে জিজ্ঞাবাদের জন্য নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) দফতরে হাজির হবেন বলিউডের এই মুহূর্তের সবচেয়ে ‘দামী’ অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। কী হতে চলেছে কেউ জানে না। বেশ কয়েকটি সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে, গত কয়েক দিন ধরে দীপিকা ঘনিষ্ঠ বেশ কয়েক জনকে জেরা করে চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে এনসিবি'র কাছে। সূত্র বলছে, সুশান্তের প্রাক্তন ট্যালেন্ট ম্যানেজার জয়া সাহা, দীপিকার ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশ এবং দীপিকা নিজেই এক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের অংশ ছিলেন, যেখানে নিয়মিত মাদক সংক্রান্ত আলোচনা চলত। এনসিবি সূত্রে খবর, জেরায় জয়া নাকি জানিয়েছেন ওই গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকাই। জয়া গ্রুপটি তৈরি করেছিলেন এবং মেম্বার ছিলেন করিশ্মা। এই তথ্য প্রকাশ্যে আসতেই বহুল চর্চিত ‘ডি’ এবং ‘কে’র মাদক সংক্রান্ত যে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছিল তা যে আদপে দীপিকা এবং করিশ্মার-ই সেই তথ্য ক্রমশ জোরালো হয়ে উঠছে। এ দিন প্রায় সাত ঘণ্টা করিশ্মাকে জেরা করেছে এনসিবি। জানা যাচ্ছে, জেরায় নতুন তথ্য ফাঁস করেছেন করিশ্মা। আগামিকাল অর্থাৎ শনিবার আবার তাঁকে ডেকে পাঠিয়েছে এনসিবি। কাল মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হতে পারে, দীপিকা এবং করিশ্মাকে। Powered By PLAYSTREAM তাই যদি হয় সেক্ষেত্রে জেরায় সময় দীপিকার স্বামী রণবীর সিংহর উপস্থিতির যে খবর পাওয়া গিয়েছিল তা কার্যকরী হবে না। শুক্রবার সকালে বেশ কয়েকটি সূত্র থেকে জানা গিয়েছিল, জেরার সময স্ত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের পাশে থাকতে চেয়ে এনসিবিকে লিখিত আবেদন পত্র জমা দিয়েছেন স্বামী রণবীর সিংহ। কারণ হিসেবে রণবীর লিখেছিলেন, “দীপিকা মাঝে মাঝেই অ্যাংজাইটিতে ভোগেন। পরিস্থিতি বিশেষ ঘন ঘন প্যানিক অ্যাটাকও হয় তাঁর।“ যদিও এনসিবি'র তরফ থেকে কেপিএস মলহোত্র এ দিন স্পষ্ট জানান, রণবীরের কাছ থেকে এখনও পর্যন্ত এমন কোনও আবেদন তাঁদের কাছে আসেনি।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply