sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » লেটস টকে আসছেন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন




লেটস টকে আসছেন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন

করোনাভাইরাস মহামারি-পরবর্তী সময়ে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার বিষয়ে কী ভাবছেন দেশের তরুণরা? আর নীতিনির্ধারকরাই বা তরুণদের জন্য কী ভাবছেন? এ দুই পক্ষের ভাবনার মেলবন্ধন ঘটাতে আওয়ামী লীগের গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিআরআইয়ের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ইয়াং বাংলা এবার আয়োজন করেছে সাত পর্বের ‘লেটস টক’। আজ শুক্রবার থেকে রোববার পর্যন্ত তিন দিনে লেটস টকের এই সাতটি পর্ব হবে। আয়োজনের তৃতীয় দিন সমাপনী পর্বে বক্তব্য দেবেন সূচনা ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন এবং ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের (সিভিএফ) দূত সায়মা ওয়াজেদ হোসেন। এ ছাড়া প্রায় প্রতিটি পর্বেই মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, সাংসদ, সরকারি কর্মকর্তা এবং বেসরকারি খাতের শীর্ষ ব্যক্তিরা উপস্থিত থাকবেন তরুণদের সামনে। দেশের নীতিনির্ধারকদের সঙ্গে তরুণদের সেতুবন্ধন গড়ে দিতে ২০১৪ সাল থেকে ইয়াং বাংলা ‘লেটস টক’ শিরোনামে এ আয়োজন করে আসছে। ২০১৮ সালের ভোটের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এ অনুষ্ঠানে এসেছিলেন নিজের ভাবনা তরুণদের সঙ্গে ভাগাভাগি করতে। লেটস টকে এর আগে বেশ কয়েকটি পর্বে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। এবারের আয়োজন নিয়ে সিআরআই এক বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, জীবনযাত্রার প্রতিটি ক্ষেত্রে দারুণ প্রভাব ফেলেছে মহামারি কভিড-১৯। অর্থনৈতিক ব্যবস্থা থেকে শুরু করে সামাজিক কার্যক্রম সবকিছুই পরিবর্তিত হয়ে যাচ্ছে। শিক্ষা, দক্ষতা উন্নয়ন, চাকরি ক্ষেত্র এবং উদ্যোক্তা তৈরির কার্যক্রম থমকে যাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে মানসিক স্বাস্থ্য, সেই সঙ্গে হ্রাস পাচ্ছে মানুষের আয়। যাই হোক না কেন, দীর্ঘ সময়ে এই মহামারির প্রভাব বয়ে নিতে হবে বর্তমান তরুণ প্রজন্মকে। কভিড-১৯-পরবর্তী সময়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লড়াইয়েও সমানে থেকে নেতৃত্ব দেবে এই তরুণ সমাজ। আর সে কারণেই মহামারি-পরবর্তী সময়ে তরুণদের নিয়ে সরকারের কার্যক্রম ও পরিকল্পনা কেমন হতে পারে তা নিয়ে আয়োজন করা হচ্ছে কয়েক পর্বের লেটস টক। এ পর্বের উদ্বোধন হবে আজ সকাল সাড়ে ১০টায়। প্রারম্ভিক পর্বে আলোচনা হবে 'তরুণদের উন্নয়ন' নিয়ে। আগামীকাল শনিবার সকাল ১১টায় দ্বিতীয় দিনের লেটস টকের প্রথম পর্বে শিক্ষার মাধ্যমে কভিড-পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় তরুণদের দক্ষতা কীভাবে কাজে লাগানো যায় এবং কীভাবে শিক্ষার মাধ্যমে এ দক্ষতা বাড়ানো সম্ভব তা নিয়ে আলোচনা হবে। রোববার সন্ধ্যা ৭টা থেকে শুরু হবে সমাপনী আয়োজন। কভিড-১৯ মহামারি-পরবর্তী সময়ের পরিকল্পনা ও তরুণদের উন্নয়ন বিষয়ে আলোচনার মাধ্যমে শেষ হবে তিন দিনের লেটস টক। নবনীতা চৌধুরীর সঞ্চালনায় কভিড-১৯-পরবর্তী সময়ে তরুণদের উন্নয়ন বিষয়ে সমাপনী বক্তব্য রাখবেন সূচনা ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply