sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ৯৭৮৯৪ নতুন করোনা সংক্রমণ, মোট সুস্থ ৪০ লক্ষ পেরলো




দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্যেই ৫০ লক্ষ ছাড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ফের ৯৭ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হলেন। একদিনের নিরিখে যা এখনও অবধি সর্বোচ্চ। সেই সঙ্গে সংক্রমণ হার ফের সাড়ে আট শতাংশ ছাড়িয়ে গেল। গত কয়েক মাস ধরেই দেশে দৈনিক মৃত্যু হচ্ছে এক হাজারের বেশি। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৯৭ হাজার ৮৯৪ জন নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। এক দিনে এত সংখ্যক মানুষ এর আগে আক্রান্ত হননি। ওই সময়ের মধ্যে আমেরিকা ও ব্রাজিলে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা যথাক্রমে ২৫ হাজার ৫২৫ ও ৩৬ হাজার ৮২০ জন। আমেরিকা ও ব্রাজিলের তুলনায় ভারতের দৈনিক সংক্রমণ প্রায় তিন গুণ বেশি। গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে এই ধারা অব্যাহত রয়েছে। বুধবার ৯৭ হাজার বৃদ্ধির জেরে দেশে মোট আক্রান্ত হলেন ৫১ লক্ষ ১৮ হাজার ২৫৩ জন। প্রথম স্থানে থাকা আমেরিকায় মোট আক্রান্ত ৬৬ লক্ষ ২৯ হাজার ও তৃতীয় স্থানে থাকা ব্রাজিলে মোট আক্রান্ত ৪৪ লক্ষ ১৯ হাজার। দৈনিক নতুন সংক্রমণ হোভার বা টাচ করলে প্রত্যেক দিনের পরিসংখ্যান দেখতে পাবেন। ) মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ ও কর্নাটক— দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধিতে দেশের মধ্যে এগিয়ে এই তিনটি রাজ্য। গত কয়েক দিন নিয়ন্ত্রণে থাকার পর মহারাষ্ট্রে দৈনিক সংক্রমণ ২৩ হাজার ছাড়িয়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশে তা ন’হাজারের কম। গত ক’দিনে কর্নাটকে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা একটু কমেছিল। আজ তা আবার সাড়ে ন’হাজারের বেশি। উত্তরপ্রদেশে দৈনিক সংক্রমণ ছ’হাজারের বেশি। দিল্লিতেও সংখ্যাটা চার হাজারের উপরে। বিহার ও পশ্চিমবঙ্গে সংখ্যাটা একই গণ্ডিতে আবদ্ধ আছে। কিন্তু ওড়িশা ও ছত্তীসগঢ়ে দৈনিক সংক্রমণ আজও লাগামছাড়া। অসম, কেরল, পঞ্জাব, তেলঙ্গানা হরিয়ানা, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ গুজরাতের মতো রাজ্যগুলির দৈনিক সংক্রমণ নিয়ে যথেষ্ট চিন্তার কারণ রয়েছে। আমেরিকা ও ইউরোপের দেশগুলির তুলনায় মৃত্যুর হার কম হলেও, ভারতে দিন দিন বাড়ছে মোট মৃত্যুর সংখ্যা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার জেরে মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ১৩২ জনের। এ নিয়ে দেশে মোট ৮৩ হাজার ১৯৮ জনের প্রাণ কাড়ল করোনাভাইরাস। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রেই মারা গিয়েছেন ৩০ হাজার ৮৮৩ জন। দ্বিতীয় স্থানে থাকা তামিলনাড়ুতে মোট মৃত্যু হয়েছে সাড়ে আট হাজার জনের। তৃতীয় স্থানে থাকা কর্নাটকে মৃতের সংখ্যা সাত হাজার ৫৩৬। অন্ধ্রপ্রদেশেও মোট মৃত পাঁচ হাজার ছাড়িয়ে বাড়ছে। দেশের রাজধানীতে সংখ্যাটা চার হাজার ৮৩৯। উত্তরপ্রদেশ (৪,৬৯০), পশ্চিমবঙ্গ (৪,১২৩), গুজরাত (৩,২৫৬) ও পঞ্জাব (২,৫৯২) মৃত্যু তালিকায় উপরের দিকে রয়েছে। মধ্যপ্রদেশ (১,৮৪৪), রাজস্থান (১,২৭৯), হরিয়ানা (১,০৪৫), তেলঙ্গানা (১,০০৫) ও জম্মু ও কাশ্মীরে (৯৩২) মোট মৃত্যু বেড়ে চলেছে। এর পর তালিকায় রয়েছে বিহার, ওড়িশা, ছত্তীসগঢ়, ঝাড়খণ্ড, অসম, কেরল, উত্তরাখণ্ড, পুদুচেরী, গোয়া, ত্রিপুরার মতো রাজ্যগুলি।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply