sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » মাদক মামলায় জেরা দীপিকাকে, এনসিবি-র দফতরে অভিনেত্রী




মাদক মামলায় জেরার মুখোমুখি হতে মুম্বইয়ে নার্কোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) দফতরে পৌঁছলেন অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। সুশান্ত সিংহ রাজপুতের হত্যার তদন্তে যে মাদক যোগ ধরা পড়ে, তাতে দীপিকার নামও উঠে এসেছে। তার জন্য অভিনেত্রীকে সমন পাঠিয়েছিল এনসিবি। দীপিকার ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশও এ দিন ফের এনসিবির দফতরে পৌঁছেছেন। দু’জনকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হতে পারে বলে জল্পনা। দীপিকাকে মুম্বইয়ের কোলাবা অ্যাপালো বন্দরের এভলিন গেস্ট হাউসে এনসিবি-র বিশেষ তদন্তকারী দলের (এসআইটি) দফতরে জেরা করা হচ্ছে। এ দিন সকালেই সেখানে পৌঁছে যান তিনি। দীপিকা উৎকণ্ঠায় ভোগেন বলে জেরার সময় স্বামী রণবীর সিংহ তাঁর সঙ্গে থাকতে চেয়েছেন বলে গতকাল শোনা গিয়েছিল। তবে এমন কোনও অনুরোধ তাঁদের কাছে এসে পৌঁছয়নি বলে জানিয় দেন তদন্তকারীরা। এ দিন একাই গেস্ট হাউস পৌঁছন দীপিকা। তাঁর সঙ্গে দেখা যায়নি রণবীরকে। সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে মাদক যোগ সামনে আসার পর থেকেই তুমুল শোরগোল পড়ে গিয়েছে গোটা দেশে। তাতে দীপিকার মতো হেভিওয়েট নায়িকা তথা ‘এ লিস্টার’-এর নাম এই মামলায় উঠে আসার পর থেকে তা অন্য মাত্রা পেয়েছে। চর্চা শুরু হয়েছে তাঁর জীবনযাত্রা নিয়ে। এমন অবস্থায় তাঁর প্রতিটি পদক্ষেপের দিকে যে সকলের নজর আটকে রয়েছে, তা বিলক্ষণ জানেন দীপিকা। তাই এ দিন একেবারে সাদামাটা পোশাকেই এনসিবি-র দফতরে পৌঁছন তিনি। তারকা সুলভ কোনও আচরণ দেখা যায়নি তাঁর মধ্যে। কালো চশমায় চোখও ঢেকে রাখেননি। বরং করোনা কালে সতর্ক বিধি মেনে মুখ ছাকা ছিল মাস্কে। আরও পড়ুন: মাদক সংক্রান্ত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকাই!​ এমনকি এ দিন যে গাড়িতে চেপে তিনি এনসিবি-র দফতরে পৌঁছন, তা-ও ছিল যথেষ্ট সাদামাটা। কোটি কোটি টাকার একাধিক বিলাসবহুল গাড়ির মালিক হলেও, এ দিন সাধারণ হুন্ডাই গাড়িকেই বেছে নেন দীপিকা। সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর মতো তথাকথিত ‘ফ্লপ’ নায়িকার দামি ও বিলাসবহুল গাড়ি ব্যবহার নিয়ে এর আগে নানা প্রশ্ন উঠেছিল। গাড়ির ব্যবহারে মানুষের ব্যক্তিত্ব ফুটে ওঠে, তা বিলক্ষণ জানতেন দীপিকা। তাই যে গাড়িতে চেপে এনসিবির দফতরে যাবেন, তা নিয়ে বাড়তি আলোচনা চাননি বলেই তিনি সাধারণ গাড়ি বেছে নেন বলে মনে করা হচ্ছে। এই একই মামলায় এ দিন এনসিবির দফতরে হাজিরা দেওয়ার কথা অন্য দুই অভিনেত্রী সারা আলি খান এবং শ্রদ্ধা কপূরেরও। তাঁদের বাল্যার্ড এস্টেটে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানা গিয়েছে। দীপিকার ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশকেও এ দিন ফের জেরার জন্য ডেকে পাঠানো হয়। এর আগে, শুক্রবার টানা চার ঘণ্টা তাঁকে জেরা করেন তদন্তকারীরা। মাদক মামলায় নাম উঠে এসেছে আর এক অভিনেত্রী রাকুল প্রীত সিংহেরও। গাঁজা কেনা এবং তা সেবন নিয়ে হোয়াটঅ্যাপে তাঁর কথোপকথন তদন্তকারীদের হাতে এসেছে বলে জানা গিয়েছে। সেই নিয়ে গতকাল জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাঁকেও। গত ১৪ জুন বান্দ্রার বাড়ি থেকে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। তার তদন্ত চলাকালীন সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে অভিনেতার মৃত্যুতে মাদক যোগ সামনে আসে। জেরায় রিয়াই সারা এবং শ্রদ্ধার নাম ফাঁস করে দেন বলে খবর। যদিও রিয়ার আইনজীবী এই দাবি অস্বীকার করেছেন। আরও পড়ুন: বিরাট-ব্যর্থতায় অনুষ্কাকে দায়ী করেননি, সাফাই গাওস্করের​ এই মামলায় সুশান্তের প্রাক্তন ট্যালেন্ট ম্যানেজার জয়া সাহাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেন তদন্তকারীরা। এনসিবি সূত্রে খবর, জেরায় জয়া নাকি জানান মাদক সংক্রান্ত আলোচনার জন্য তিনি একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ তৈরি করেছিলেন। তার সদস্য ছিলেন দীপিকার ম্যানেজার করিশ্মা। গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকা। সেখানে নিয়মিত মাদক সংক্রান্ত আলোচনা করতেন তাঁরা। তবে দীপিকা, সারা, শ্রদ্ধা অথবা রাকুল, কারও বিরুদ্ধেই এখনও পর্যন্ত কোনও মামলা দায়ের হয়নি। তদন্তের প্রয়োজনে তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply