sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » সামনে মহাবিপদ অপেক্ষা করছে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা




মহামারি করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় সম্মিলিতভাবে লড়াই করা। আর তা না হলেই মহাবিপদ অপেক্ষা করছে আমাদের সামনে। আগামীদিনে দ্বিগুণ হতে পারে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা। এমনটি আশংকা করছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি বিভাগের কর্মকর্তা। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) এক ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকে এমনই সতর্কবার্তা দিলেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি বিভাগের কর্তা মাইক রায়ান। মাইক রায়ান বলছেন, মহামারি করোনার প্রকোপে বিশ্বজুড়ে ইতিমধ্যেই প্রায় ১০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আমরা যদি এখনই সম্মিলিত হয়ে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ না করি, তাহলে আগামী দিনে এই মৃতের সংখ্যাটা ২০ লাখে পৌঁছে যেতে পারে। চীন করোনা ভাইরাসের বিপদ নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে সতর্ক করেছিল ঠিক ৯ মাস আগে। চীনের সতর্কতা বার্তা পাওয়ারও বেশ কিছুদিন পর ৩০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে ‘পাবলিক হেলথ এমারজেন্সি’ ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এর মধ্যে বহু ঢিলেমির অভিযোগ উঠেছে। আমেরিকা অভিযোগ করেছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাফিলতির কারণে করোনা আজ মহামারির আকার নিয়েছে। আবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দাবি করেছে, আমেরিকা-সহ বহু দেশ তাদের দেওয়া সতর্কবার্তাকে গুরুত্ব দেয়নি। কারণ যাই হোক, করোনা আজ বিশ্বব্যাপী ত্রাস সৃষ্টি করেছে। বিশ্বজুড়ে এর কবলে পড়েছেন ৩ কোটি ৩৪ লাখের ও বেশি মানুষ। আর করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে প্রায় ১০ লাখ মানুষের। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, বিপদ এখনও বাকি আছে। এই মহামারি থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা। যেখানে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে, সেখানে সংক্রমণ কমছে। যেখানে মানা হচ্ছে না, সেখানে বাড়ছে। আমাদের এখন সম্মিলিতভাবে এই ভাইরাস রুখে দেওয়ার চেষ্টা করতে হবে। সেটা যদি না করা যায় তাহলে বিপদ আসন্ন। আরও পড়ুনঃ করোনার সব ভ্যাকসিনে গ্যারান্টি দেওয়া সম্ভব নয়: ডব্লিউএইচও মাইক রায়ান শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ভার্চুয়াল সভায় বলেন, '১০ লাখ সংখ্যাটা ভয়াবহ। এই মৃতের সংখ্যাটা আরও ১০ লাখ পূর্ণ হওয়ার দিকে পা বাড়ানোর আগে আমাদেরই ফিরে দেখা উচিত, এই মহামারি রুখতে আমরা কতটা কার্যকরী ভূমিকা নিয়েছি। আমরা কি সত্যিই এই ভয়াবহতা এড়ানোর জন্য প্রস্তুত?' আর যদি সত্যিই আমরা সম্মিলিতভাবে পদক্ষেপ করার প্রস্তুতি না নিয়ে থাকি, তাহলে মৃতের সংখ্যাটা অনেক অনেক বেশি হবে। ২০ লাখ হওয়ার সম্ভাবনাটা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। বিগত ৯ মাসে আমরা ১০ লক্ষ মানুষকে হারিয়েছি। আগামী ৯ মাস ভ্যাকসিনের জন্য অপেক্ষা না করে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে বলে সবাইকে তিনি আহ্বান জানান। উল্লেখ্য, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩ কোটি ২৭ লাখ ৫৮ হাজার ছাড়িয়েছে। আর এ মহামারিতে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৯ লাখ ৯৩ হাজার। করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৯ লাখ ৯৩ হাজার ৪৩৫ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ২৭ লাখ ৫৮ হাজার ৯৮৯ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২ কোটি ৪১ লাখ ৭৩ হাজার ৪০ জন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply