sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » বিজেপি-সঙ্গ ত্যাগ করল সবচেয়ে পুরনো সঙ্গী শিরোমণি অকালি দল




বিজেপি-সঙ্গ ত্যাগ করল সবচেয়ে পুরনো সঙ্গী শিরোমণি অকালি দল পুরনো বন্ধু শিবসেনা আগেই সঙ্গ ছেড়েছে। নরেন্দ্র মোদী সরকারের কৃষি বিলের প্রতিবাদে দেশজোড়া বিক্ষোভের মধ্যেই এ বারে বিজেপি-সঙ্গ ত্যাগ করল এনডিএ-তে তাদের সবচেয়ে পুরনো সঙ্গী শিরোমণি অকালি দল। কৃষি বিলের বিরোধিতা করে ক’দিন আগেই কেন্দ্রে মন্ত্রিত্ব ছেড়েছিলেন অকালি দলের মন্ত্রী হরসিমরত কউর বাদল। তার পর থেকেই তারা এনডিএ-তে থাকবে কি না, তা নিয়ে জল্পনা তৈরি হচ্ছিল। অকালি বাইরে থেকে সরকারকে সমর্থন করবে বলে শোনা গিয়েছিল। কিন্তু পঞ্জাব ও হরিয়ানায় প্রবল কৃষি বিক্ষোভ দলের অন্দরে চাপ বাড়তে থাকে। তার মধ্যেই আজ পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিংহ ফের অকালি দলকে খোঁচা দিয়ে বলেন, ‘‘বিজেপি বড় কর্পোরেট হাউসের সঙ্গে হাত মিলিয়ে পঞ্জাবের কৃষকদের বঞ্চিত করছে। অকালি দল কিসের স্বার্থে এখনও সেই সরকারের শরিক হয়ে আছে?’’ এর কয়েক ঘণ্টা পরেই দলের কোর কমিটির বৈঠক সেরে অকালি দলের সভাপতি সুখবীর সিংহ বাদল জানিয়ে দেন, দলের সর্বসম্মত সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে তাঁরা এনডিএ জোট ছাড়ছেন। ৩ কোটি পঞ্জাবির যন্ত্রণা ও আবেগকে সম্মান জানাচ্ছে না মোদী সরকার, অভিযোগ সুখবীর-পত্নী হরসিমরতের। অকালি দলের প্রাণপুরুষ প্রকাশ সিংহ বাদল বারবার বলেছেন, আমার জীবদ্দশায় বিজেপি-অকালি জোট ভাঙবে না। সূত্রের খবর, অকালির এই এনডিএ-জোট ছাড়ার পিছনে কারণ শুধু কৃষি বিল নিয়ে অসন্তোষও নয়। অকালি প্রভাবিত এলাকায় বিজেপির সংগঠন বাড়ানোর চেষ্টা, দলে সুখবীর-বিরোধীদের সঙ্গে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বের ঘনিষ্ঠতা বাড়ানো এবং বিজেপি যে ভাবে দলের শিখ নেতা তৈরির চেষ্টা করছিল, তাকে ভাল ভাবে নেননি সুখবীররা। তাৎপর্যপূর্ণ হল, অকালির বিদায়কে বিশেষ পাত্তা দিচ্ছে না লোকসভায় একক সংখ্যাগরিষ্ঠ বিজেপি। দলের সংগঠনের নেতা বি এল সন্তোষ আজ বলেন, ‘‘মোদীর নেতৃত্বে কৃষকদের উন্নতির জন্য বিজেপিই কাজ করে দেখাচ্ছে। সে জন্য মোদীর উপরে কৃষকদের বিপুল আস্থা রয়েছে।’’

Advertisement Powered By PLAYSTREAM যদিও কৃষি বিক্ষোভ কিন্তু সেই ‘আস্থা’র প্রমাণ দিচ্ছে না। শনিবারও পঞ্জাবে কৃষকদের ‘রেল রোকো’ চলল পুরোদমে। ‘কিষান মজদুর সংঘর্ষ কমিটি’র ডাকে এই আন্দোলন শুরু হয়েছে বৃহস্পতিবার থেকে। আজও কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে দিতে লাইনের উপরে শুয়ে পড়েন বিক্ষোভাকারীরা। দেশের অন্য বহু জায়গাতেও কৃষকদের বিক্ষোভ চলছে। এ দিকে কৃষি সংস্কার বিল নিয়ে মোদী সরকারের বিরোধিতা করে সোশ্যাল মিডিয়াতেও এ বার প্রচার শুরু করল কংগ্রেস। মোদী কৃষকদের দেউলিয়া বানাচ্ছেন, এই অভিযোগে সাধারণ মানুষকে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়ানোর আর্জি জানিয়েছেন রাহুল গাঁধী। শনিবার রাহুল টুইট করেন, ‘কৃষকদের উপরে মোদী সরকারের নৃশংসতা ও শোষণের প্রতিবাদ জানান। আপনাদের ভিডিয়োর মাধ্যমে আমাদের অভিযানে যোগ দিন।’ নিজেদের টুইটার হ্যান্ডেলেও কংগ্রেস লিখেছে, সরকার সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে কৃষকদের স্বার্থে জলাঞ্জলি দিচ্ছে এবং কৃষি যাতে তাদের পুঁজিবাদী বন্ধুদের উপার্জনের পথ হয়ে ওঠে, সেই চেষ্টা করছে






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply