sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » রুবেল-মিরাজদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে বিধ্বস্ত তামিমরা




তামিম একাদশের বিপক্ষে বল হাতে দারুণ ছিলেন রুবেল হোসেন ও মেহেদী হাসান মিরাজরা। ছবি : বিসিবি ভেজা উইকেটে বল হাতে জ্বলে উঠলেন অভিজ্ঞ পেসার রুবেল হোসেন ও স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। প্রতিপক্ষের দুর্দান্ত বোলিংয়ে পাত্তাই পেল না তামিম একাদশ। মাহমুদউল্লাহ একাদশের বোলিং তোপে মাত্র ১০৩ রানে ইনিংস গুটিয়ে নিল তামিম বাহিনী। আজ মঙ্গলবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাট করে মাত্র ২৩.১ ওভারে ইনিংস গুটিয়ে নেয় তামিম একাদশ। ইংনিসের শুরুতেই হতাশ করেন ওপেনার তামিম। সাত মাস পর ফিরে ২ রানে সাজঘরে ফিরেছেন তিনি। ইনিংসের ১.৩ নম্বর বলে পেসার রুবেল হোসেনের এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফেরেন ওয়ানডে অধিনায়ক। তামিমের ফেরার পরই বৃষ্টি নামে। এক ঘণ্টা ৪৪ মিনিট খেলা বন্ধ থাকার পর ৪৭ ওভারে নেমে আসে ম্যাচ। পরে ব্যাট করতে নেমে মাহমুদউল্লাহ একাদশের বোলারদের সামনে মুখ থুবড়ে পড়েন তামিম একাদশের ব্যাটসম্যানরা। অষ্টম ওভারে আউট হন তানজিদ হাসান তামিম। জুনিয়র তামিমকেও নিজের শিকার বানান রুবেল হোসেন। ১৮ বল খেলে ২৭ রান করেন তরুণ এই ওপেনার। একই ওভারের পঞ্চম বলে মোহাম্মদ মিঠুনকে সাজঘরে পাঠান রুবেল। মুমিনুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে রানের খাতা খোলার আগেই বিদায় নেন মিঠুন। এক রানে শাহাদাত হোসেনকে বিদায় করেন সুমন খান। এরপর সুমন-মিরাজদের বোলিংয়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে বেশিদূর যেতে পারেনি তামিম একাদশ। ২৩.১ ওভারে ১০৩ রানে অলআউট হয় তারা। তানজিদের ২৭ রানের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৫ রান করেন এনামুল হক বিজয়। সাইফউদ্দিন করেন ১২ রান। মেহেদী হাসান করেন ১৯ রান। পাঁচ ওভারে ১৬ রান দিয়ে তিন উইকেট নেন রুবেল হোসেন। ৩১ রান দিয়ে সমান তিন উইকেট পান সুমন। দারুণ বোলিং করেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ৪ ওভারে মাত্র ২ রান দিয়ে দুটি উইকেট নিয়েছেন তিনি। সমান দুটি উইকেট নিয়েছেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লবও।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply