sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » হাসপাতালে ভর্তি ব্যারিস্টার রফিক-উল হক




সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হক। ফাইল ছবি সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রাজধানীর মগবাজারের আদ-দ্বীন হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন। আজ শুক্রবার বিকেলে হাসপাতালে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে খ্যাতিমান প্রবীণ এই আইনজীবীকে হাসপাতালে আনা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাঁকে ভিআইপি কেবিনে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তিনি হাসপাতালের ডা. রিচমন্ড রোল্যান্ড গোমেজের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে হাসপাতালের জনসংযোগ কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম আকাশ গণমাধ্যমকে জানান, বার্ধক্যজনিত, ইউরিন ইনফেকশন এবং রক্তশূন্যতার কারণে ব্যারিস্টার রফিক-উল হক শারীরিকভাবে দুর্বল। তাঁকে তরল খাবার দেওয়া হচ্ছে। ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের সুস্থতা কামনা করে স্বজনরা দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন। ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে রাজধানীর বেসরকারি একটি হাসপাতালে ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের বাঁ পায়ে অস্ত্রোপচার হয়। এরপর থেকে তাঁর স্বাভাবিক হাঁটাচলা ব্যাহত হয়। মাঝেমধ্যে পায়ে ব্যথা হয়। যে কারণে হুইল চেয়ারে যাওয়া-আসা করতে হয়। ব্যরিস্টার রফিক-উল হক ২০১১ সালে স্ত্রী ডা. ফরিদা হকের মৃত্যুর পর থেকে নিঃসঙ্গ হয়ে পড়েন। রফিক-উল হকের জুনিয়র এক আইনজীবী বলেন, ‘অনেক দিন স্যার লোকসমাগম ও গণমাধ্যম এড়িয়ে চলেন। কারো সঙ্গে বেশি সময় নিয়ে কথা বলেন না। সংবিধান, আইন, আদালত, দেশের রাজনীতির প্রতি এখন আর আগের মতো আগ্রহ নেই। আগে যেভাবে এসব নিয়ে সরব ছিলেন এখন তা একেবারেই নেই। নিতান্ত প্রয়োজন ছাড়া আদালতেও আসেন না খুব একটা। আদালত সংশ্লিষ্ট কোনো বিষয়েও এখন তাঁর আগের মতো উৎসাহ নেই। স্যারের মামলাগুলো এখন আমরাই পরিচালনা করি। তিনি আমাদের পরামর্শ দেন। আর পুরানা পল্টনের ছায়াশীতল, নিরিবিলি এই বাড়িটি তাঁর এত প্রিয় যে এখান থেকে কোথাও যেতে চান না তিনি।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply