sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » মাস্ক বাধ্যতামূলকের পক্ষে বাইডেন, বিরোধিতা ট্রাম্পের




মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সামনে রেখে আলাদা দুটি টেলিভিশনে দর্শকদের প্রশ্নের উত্তর দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বাইডেন। এ সময়, আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে জমে উঠে দুটি অনুষ্ঠানই। বরাবরের মতোই যুক্তরাষ্ট্রের করোনা মহামারির জন্য ট্রাম্পকে দায়ী করেন বাইডেন। তুলে ধরেন মাস্কের প্রয়োজনীয়তা। বলেন, যে যাই বলুক, করোনা ঠেকাতে মাস্কের বিকল্প নেই। আপনাকে রাষ্ট্রীয়ভাবে এটি বাধ্যতামূলক করতেই হবে। প্রয়োজনে আমি ৫০টি অঙ্গরাজ্যের গভর্নরদের নিয় বসবো। তাদেরকে বলবো প্রতিটি অঙ্গরাজ্যে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরিধানের নির্দেশনা জারি করতে। প্রেসিডেন্ট রাষ্ট্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, আর সেজন্যই প্রেসিডেন্টের উচিত সব সময় মাস্ক পরা, যাতে সবাই বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে নেয়। ঠিক একই সময় ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জো বাইডেনের টাউন হল মিটিং অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্ক বাতিল হলেও একই সময় টাউন মিটিং সরাসরি সম্প্রচার করা নিয়ে নতুন বিতর্কের জন্ম দিল দুই টিভি চ্যানেল-- এনবিসি ও এবিসি। বৃহস্পতিবার মুখোমুখি বিতর্ক হওয়ার কথা ছিল ট্রাম্প-বাইডেনের মধ্যে। কিন্তু প্রেসিডেন্ট করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় বাতিল করা হয় সেই বিতর্ক। আর এ দিনটিতেই টাউন হলের আদলে মিটিংয়ের আয়োজন করে দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর প্রচারণা শিবির। ট্রাম্প বেছে নেন ব্যাটল গ্রাউন্ড ফ্লোরিডা, যেখানে ইলেক্টোরাল কলেজের ভোট ২৯টি। আর বাইডেন ছিলেন নির্বাচনী যুদ্ধক্ষেত্র পেনসিলভেনিয়ায়, সেখানে ইলেক্টোরাল ভোটের সংখ্যা ২০টি। টাউন হল মিটিংয়ে দুই প্রার্থীকেই প্রশ্ন করার সুযোগ পান ভোটাররা। প্রশ্নের জবাব দেয়ার পাশাপাশি ট্রাম্প-বাইডেন দুজনই পরষ্পরের প্রতি মারমুখী হন। করোনা সম্পর্কে ট্রাম্প বলেন, চীনা ভাইরাসের কারণে এসব হয়েছে। আপনারা সবাই ভালো করেই এটা জানেন। আমরা বহু মানুষের জীবন রক্ষায় সহায়তা করতে পেরেছি। সঠিক পদক্ষেপের কারণে এটা সম্ভব হয়েছে। অধিক মৃত্যু ঠেকাতে পারা নি:সন্দেহে আমরাদের বড় বিজয়। এছাড়া, মাস্ক পরেও ৮৫ শতাংশ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। করোনা মহামারি আবারও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে যুক্তরাষ্ট্রে। আসছে থ্যাংকসগিভিংয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন শীর্ষ রোগ সংক্রমক বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনী ফাউসি। আগামী ৭ নভেম্বরের মধ্যে আরও ২৩ হাজার মানুষের মৃত্যু হবে যুক্তরাষ্ট্রে। সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল-সিডিসির এমন ধারণার মধ্যেই ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। যদিও এ নির্বাচন নিয়ে উৎসাহ উদ্দীপনার কমতি নেই। কারণ এখন পর্যন্ত রেকর্ডসংখ্যক দেড় কোটিরও বেশি ভোটার নির্বাচনে আগাম ভোট দিয়েছেন। আর পুরো দেশে নির্বাচনী জরিপে ট্রাম্পের চেয়ে ১১ পয়েন্ট এগিয়ে আছেন বাইডেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply