sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » বিএনপি নয়, জনগণই এই সরকারকে সময় দিচ্ছে : তথ্যমন্ত্রী




বিএনপি নয়, জনগণই এই সরকারকে সময় দিচ্ছে : তথ্যমন্ত্রী তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আজ শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে বাংলাদেশ বেতারের একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

ি এই সরকারকে আর সময় দেওয়া যাবে না—বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাব দিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, বিএনপি নয়, জনগণই এই সরকারকে সময় দিচ্ছে। আজ শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে বাংলাদেশ বেতারের একটি অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। বাংলাদেশ বেতারের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তিবিষয়ক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ড. হাছান মাহমুদ। বেতারের মহাপরিচালক হোসনে আরা তালুকদারের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য দেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার এ বি এম আজাদ। প্রধান অতিথির ভাষণে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আকাশ-সংস্কৃতির আগ্রাসী থাবা থেকে নতুন প্রজন্মকে রক্ষা করতে হবে। এ ক্ষেত্রে দেশীয় সংস্কৃতিকে রক্ষায় বেতার-টেলিভিশনকে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি। বিএনপি প্রসঙ্গে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘উনারা অবশ্য আমাদের সময় দিচ্ছেন না বহু আগে থেকে। ২০০৯ সালে আমরা সরকার গঠনের তিন মাসের মাথা থেকে উনারা আমাদের কখনো সময় দিতে চাননি। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, জনগণ আমাদের সময় দিয়েছে। এবং প্রায় পৌনে ১২ বছর ধরে জননেত্রী শেখ হাসিনা একটানা প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন। সুতরাং মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব সময় দিলেন কি দিলেন না, সেটি বড় ব্যাপার নয়, জনগণ সময় দিচ্ছে কিনা সেটিই হচ্ছে মুখ্য বিষয়।’ তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল, তখন তারা তো দলগতভাবে এ সমস্ত অপকর্ম করেছে। নৌকায় ভোট দেওয়ার অপরাধে আট বছরের শিশু থেকে শুরু করে অন্তঃসত্ত্বা নারী, ষাট বছরের বয়স্ক নারী পর্যন্ত কেউ রক্ষা পায়নি বিএনপির লেলিয়ে দেওয়া বাহিনীর হাত থেকে। যারা নারী নির্যাতন-ধর্ষণগুলো দলগতভাবে অতীতে করেছে, এ নিয়ে যখন তারা কথা বলে, তখন হাস্যকর হয়ে দাঁড়ায়। তাই মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য হাস্যকর।’ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বের সরকার এ ধরনের ঘটনা অতীতে যেগুলো ঘটেছে, সেগুলোর বিচার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিয়েছে। এখনো যেগুলো ঘটেছে, সেগুলোরও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার জন্য বদ্ধপরিকর।’ অনুষ্ঠানে দেশের সাম্প্রতিক ধর্ষণবিরোধী আন্দোলন প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এ ধরনের ঘটনা আগেও ঘটেছে, বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার কারণে কোনো ঘটনাই আর চাপা থাকছে না। এ নিয়ে সরকারের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য হাস্যকর বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply