sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » ট্রাম্পের পোস্টে বিভ্রান্তি, সরিয়ে দিলো ফেসবুক-টুইটার




ট্রাম্পের পোস্টে বিভ্রান্তি, সরিয়ে দিলো ফেসবুক-টুইটার

করোনাভাইরাস নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পোস্ট সরিয়ে দিল ফেসবুক এবং টুইটার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এই দুটি সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিধ্বস্ত গোটা বিশ্ব। এমন পরিস্থিতিতে মানুষের কাছে সঠিক তথ্য পৌঁছাচ্ছে কি না, সে ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। তাই কোনও রকমের ভুল তথ্য চোখে পড়লেই সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। করোনাক্রান্ত ট্রাম্প তিনদিন হাসপাতালে থাকার পর মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে ফিরেই ফেসবুক ও টুইটারে পোস্ট দেন। পোস্টে ট্রাম্প লিখেছেন, ‘ভ্যাকসিন থাকার পরও প্রতিবছর বহু মানুষ, কখনও কখনও এক লাখেরও বেশি ফ্লুতে মারা যায়। আমরা কি আমাদের দেশটি বন্ধ করে দেব? না, আমরা এর সঙ্গে বাঁচা শিখে নিয়েছি, ঠিক যে রকম করে আমরা কোভিডের সঙ্গে বেঁচে থাকা শিখে নিচ্ছি, বেশিরভাগ মানুষের কাছেই তা প্রাণঘাতীর চেয়ে অনেক কম কিছু!!!’ নোভেল করোনাকে সাধারণ ফ্লু-র সঙ্গে তুলনা করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তা নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। অভিযোগ ওঠে, আসন্ন নির্বাচনে যাতে করোনার প্রভাব না পড়ে, তার জন্যই কোভিডের ভয়াবহতাকে খাটো করে দেখাচ্ছেন ট্রাম্প। এরপরই ট্রাম্পের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয় দুই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সংস্থা। কিন্তু ফেসবুক যতক্ষণে পদক্ষেপ নেয়, ততক্ষণে ট্রাম্পের পোস্টটি প্রায় ২৬ হাজার বার শেয়ার হয়েছে। ফেসবুকের এক মুখপাত্র বলেন, ‘কোভিডের ভয়াবহতা সম্পর্কে ভুল তথ্য চোখে পড়লেই তা সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এত দিন রাজনীতিকদের ক্ষেত্রে থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট চেকিংয়ের প্রথা ছিল না ফেসবুকে।’ এর আগে আগস্টে ট্রাম্পের পোস্ট করা আরেকটি ভিডিও সরিয়ে দেয় ফেসবুক। ওই ভিডিওতে ট্রাম্প বলেন, ‘শিশুদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম।’ মঙ্গলবার কোভিড নিয়ে ট্রাম্পের আরও একটি টুইট সরিয়ে দিয়েছিল টুইটার। তা নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে সতর্কবার্তাও দিয়েছিল সংস্থাটি। তাতে বলা হয়, ‘কোভিড নিয়ে বিভ্রান্তিকর এবং ক্ষতিকর তথ্য আমাদের অতিমারি সংক্রান্ত নিয়মের পরিপন্থী।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply