sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মেহেরপুর সিদ্ধেশরী কালী মন্দির




মেহেরপুর জেলা সদরের কাছে বড় বাজারে প্রাচীন আমলের শ্রী শ্রী অবস্থিত। স্থানীয় হিন্দুদের কাছে এটি জেলা কেন্দ্রীয় মন্দির হিসেবে পরিচিত। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্থানি হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসররা এই মন্দির আক্রমণ করে মন্দিরের ভিতরের বালা দেবীর বিগ্রহটি গুড়িয়ে দেয়। স্বাধীনতার পর স্থানীয় হিন্দুরা পুনরায় মন্দিরের অভ্যন্তরে মূর্তি স্থাপন করে নিয়মিত পূজা অর্চনা শুরু করেন। প্রতি বছরই এই কালী মন্দিরে কালী পূজা, দূর্গা পূজা ও সরস্বতী পূজাসহ হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বিভিন্ন আচার-অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়ে থাকে। বৈশাখ মাসের শেষ সংক্রান্তিতে শ্রী শ্রী সিদ্ধেশরী কালী মন্দিরকে ঘিরে বৈশাখ সংক্রান্তির মেলা বসে। সেসময় সারাদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে অসংখ্য আগ্রহী দর্শ

কিভাবে যাবেন ঢাকা থেকে সড়কপথে পাটুরিয়া ফেরিঘাট বা বঙ্গবন্ধু সেতু পার হয়ে মেহেরপুর যেতে হয়। ঢাকার গাবতলী ও কল্যাণপুর থেকে জেআর, রয়েল, এসএম, মেহেরপুর ডিলাক্স, চুয়াডাঙ্গা এক্সপ্রেস, এসবি পরিবহণ এবং শ্যামলী পরিবহণের এসি/নন-এসি বাসে মেহেরপুর যাওয়া যায়। এছাড়া পাটুরিয়া ফেরিঘাট থেকে ফরিদপুর, চুয়াডাঙ্গা কিংবা রাজবাড়ি হয়েও মেহেরপুর যেতে পারবেন। মেহেরপুর শহরের জিরো পয়েন্ট থেকে পায়ে হেঁটে শ্রী শ্রী সিদ্ধেশ্বরী কালি মন্দির পৌঁছাতে পারবেন। কোথায় থাকবেন রাত্রিযাপনের জন্য মেহেরপুর শহরের বাস স্ট্যান্ড রোড ও বড় বাজারে বেশকিছু আবাসিক হোটেল রয়েছে এদের মধ্যে হোটেল নাইট বিলাস, হোটেল অনাবিল, প্রিন্স আবাসিক, ফিন টাওয়ার ও রনি আবাসিক হোটেল অন্যতম। এছাড়াও পর্যটন মোটেল, সার্কিট হাউজ, গনপূর্ত রেস্ট হাউজ ও জেলা পরিষদের ডাক বাংলোতে অনুমতি সাপেক্ষে রাত্রিযাপন করা যায়। কোথায় খাবেন মেহেরপুর সদরে অবস্থিত কুটুমবাড়ি রেস্টুরেন্ট, ক্যাফে ইন, গালিবস ইত্যাদি রেস্টুরেন্টে মানসম্মত খাবার খেতে পারবেন। মেহেরপুরের বিখ্যাত খাবারের মধ্যে সাবিত্রী ও রসকদম্ব মিষ্টি অন্যতম। এছাড়া আমের মৌসুমে মেহেরপুরের বিখ্যাত পাকা আমের স্বাদ নিতে ভুল করবেন না।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply