sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » স্লেজিং নয়, মাঠের খেলায় মনোযোগ বাড়াতে চান স্মিথ




স্লেজিং নয়, মাঠের খেলায় মনোযোগ বাড়াতে চান স্মিথ

পুনরায় অধিনায়কত্বে ফেরা নিয়ে আপাতত কিছুই ভাবছেন না অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যান স্টিভেন স্মিথ। ব্যাটিংয়ে পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে, দুই ফরম্যাটের অধিনায়ককে সমর্থন করে যেতে চান। ভারতের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজ খেলতে মুখিতে আছেন স্টিভ। দু’বছর আগে তাদের হারিয়ে যাওয়ার প্রতিশোধ নেওয়ার কোনো লক্ষ্য নেই। তবে নিজে ভালো খেলার সঙ্গে দলের ইতিবাচক ফলাফলের দিকেই দৃষ্টি তার। স্যান্ডপেপার গেট স্ক্যান্ডাল। যে ঘটনা কলঙ্কিত করে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটকে। এক বছরের জন্য ক্রিকেট থেকে নির্বাসনে যেতে হয় দলটির দুই বড় তারকা স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারকে। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের সবচেয়ে আলোচিত ঘটনার প্রভাবও পড়ে দেশটির ক্রিকেটে। দু’বছর আগে অস্ট্রেলিয়া সফরে যায় ভারত ক্রিকেট দল। আত্মবিশ্বাস ও নেতৃত্ব সঙ্কটে ভোগা অজি দলটাকে তাদের মাটিতেই প্রথমবারের মতো টেস্ট সিরিজে হারায় কোহলির ইন্ডিয়া। সেই সিরিজটা ঘরে বসেই দেখতে হয়েছিল স্টিভেন স্মিথকে। দলের হারে ব্যথিত স্টিভ, এবার খেলবেন টিম ইন্ডিয়ার বিপক্ষে। তবে নেই প্রতিশোধ নেওয়ার কোনো তাড়না। স্টিভ স্মিথ বলেন, ঘরে বসে খেলা দেখাটা আমার জন্য খুবই বিরক্তিকর ছিল। আমার সব সময় মনে হতো মাঠে থাকলে আমি ভালো কিছু করতে পারতাম। তবে এখন আর সে সব নিয়ে কোনো আক্ষেপ নেই। আমি আসন্ন সিরিজ খেলতে মুখিয়ে আছি। বিশ্বের শীর্ষ দুই দলের খেলা বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে বলেই আমার বিশ্বাস। স্মিথের পর টিম পেইন অজিদের সাদা পোশাকে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। জয়-হারের অনুপাতে স্মিথের কাছাকাছিই আছেন পেইন। তাই আপাতত নেতৃত্বে ফেরা নিয়ে কিছু ভাবছেন না স্মিথ। বরং তার পূর্ণ মনোযোগ ব্যাটিংয়ে। এক বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষে ফেরার পর, স্মিথের ব্যাটে রানের ফোয়ারা। গেলো বছর অ্যাশেজে ৭ ইনিংসে করেছেন ৭৭৪ রান। যে ফরম্যাটেই খেলছেন, তার হয়ে ব্যাটটা ভালোই জবাব দিচ্ছে। এ জন্যই হয়তো নিয়েছেন নেতৃত্ব থেকে দূরে থাকার সিদ্ধান্ত। স্মিথ আরও জানান, এই মুহূর্তে আমি অধিনায়কত্ব নিয়ে কিছুই ভাবছি না। আমি টিম পেইন ও ফিঞ্চকে পূর্ণ সমর্থন দিয়ে যেতে চাই। তারা দু’জনেই নেতৃত্ব দেওয়ার কাজটা খুব ভালো করছে। আমার কাজ শুধু রান করা। সে কাজটাই করে যেতে চাই আমি। ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ মানেই তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা। মাঠের লড়াইয়ের সঙ্গে চলে কথার লড়াইও। যা অনেক সময় পেশাদারিত্বের মাত্রাকেও ছাড়িয়ে যায়। তবে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের বর্তমান যুগে আগের মতো স্লেজিং হয় না। তাই আসন্ন সিরিজে লড়াইটা মাঠের খেলাতেই সীমাবদ্ধ থাকবে এমন ইঙ্গিত দিলেন স্মিথ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এখন পরিস্থিতি আগেই মতো নেই। সবাই বিশ্বের বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলছে। ক’মাস পরপরই দেখা হয়ে যায়। সবার মধ্যেই একটা উষ্ণ সম্পর্ক আছে। তাই এখন ক্রিকেট মাঠে খুব একটা স্লেজিং হয় না। ভারতের সীমিত ওভারের স্কোয়াডে নেই রোহিত শর্মা। প্রথম টেস্টের পর ছুটিতে যাবেন কোহলিও। তারপরও তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ একটা সিরিজের প্রত্যাশা স্মিথের।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply