sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » নাটোরের গুরুদাসপুরের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৪ জন আহত ও ১জন নিহত




হয়েছে। আহত ৪ জনকে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহত নুরেন বক্সের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসা চলাকালীন অবস্থায় মারা যান। পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, সোমবার বিকালে গুরুদাসপুর উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়নের বামনকোলা গ্রামের নুরেন বক্স তার জমিতে খরের গাদা দেয়াকে কেন্দ্র করে ভাতিজা সোহাগের কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চাচা-ভাতিজা উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। সংঘর্ষ চলাকালীন ভাতিজা সোহাগ (২৫) তার আপন চাচা নুরেন বক্স (৫০) কে কুঠার দিয়ে বাম পাজরে আঘাত করে। বাধা দিতে গেলে নুরেন বক্সের শ্যালক আব্দুল (৪৫) ও হাসেম (২৫) আহত হয়। অপর পক্ষের সোহাগ(২৫) ও তার পিতা জা বক্স (৪০) গুরুতর আহত হয়। পরে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে উভয় পক্ষের আহতদের স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। আহত ৫ জনের মধ্যে ৪ জনকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে নুরেন বক্স এর অবস্থা আশংঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহীতে প্রেরণ করা হয়। রাত প্রায় ৮ টার দিকে রাজশাহীতে চিকিৎসা চলাকালীন অবস্থায় নুরেন বক্স মারা যায়। গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক জানান, ঘটনা জানার পর পরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে সোহাগ বক্স, সাগর বক্স, সাব্বির বক্স, জা বক্স সহ মোট ৪ জনকে আসামি করে গুরুদাসপুর থানায় মৃত নুরেন বক্সের স্ত্রী আলুফা খাতুন (৪৫) একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এর মধ্যে সোহাগ বক্স ও জা বক্সকে আটক করা হয়েছে। বাকি আসামিদের আটকের চেষ্টা চলছে






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply