sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » দুই দলেরই বিরোধিতা উপেক্ষা করে সামরিক বাজেটে ভেটো দিলেন ট্রাম্প




মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সেদেশের ৭৪ হাজার কোটি ডলারের সামরিক বাজেট প্রস্তাবে ভেটো দিয়েছেন। মার্কিন কংগ্রেসে দুই দলের সমর্থন নিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে বাজেট প্রস্তাব পাশ হয়। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ভেটো দিয়ে প্রমাণ করলেন এমনকি ক্ষমতার শেষ মুহূর্তেও তিনি নিজের অবস্থান থেকে পিছু হটতে প্রস্তুত নন। সিনেটে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিতে ২০২১ সালের সামরিক বাজেটের পক্ষে ৮৪টি ভোট এবং বিপক্ষে ১৩টি ভোট পড়ে। অন্যদিকে প্রতিনিধি পরিষদের ভোটাভুটিতেও প্রস্তাবের পক্ষে ৩৫৫ এবং বিপক্ষে ৭৮টি ভোট পড়ে। বিভিন্ন কারণে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কংগ্রেসে এ ধরনের সামরিক বাজেট পাশের বিরোধী। তিনি এতে ভেটো দেয়ার অন্যতম কারণ হচ্ছে তিনি অভিযোগ করে বলেছেন নতুন প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্রে দাস প্রথার যুগের যেসব জেনারেলের নামে সামরিক ঘাঁটির নামকরণ করা হয়েছিল তাতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। তিনি এও দাবি করেন, যুক্তরাষ্ট্রে গৃহযুদ্ধের সময় জেনারেলদের নামে যে কয়েকটি সামরিক ঘাঁটি রয়েছে তা যেন বহাল থাকে। সামরিক বাজেটে ভেটো দেয়ার আরেকটি কারণ হিসেবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন এমনভাবে এ বাজেট প্রস্তাব দেয়া হয়েছে যা কিনা কেবল চীনের স্বার্থ রক্ষা করবে। তিনি কংগ্রেসকে লেখা চিঠিতে দাবি করেছেন আমার পররাষ্ট্র নীতিতে জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়টিকে যে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছিল নতুন এ প্রস্তাবে সেটাকে উপেক্ষা করা হয়েছে। প্রস্তাবে চীন ও আফগানিস্তানের ব্যাপারে যে নীতির কথা বলা হয়েছে তার প্রতিবাদে ট্রাম্প আগেই এতে ভেটো দেয়ার হুমকি দিয়েছিলেন। কংগ্রেসে প্রস্তাব পাশের পর এক টুইটবার্তায় তিনি বলেছিলেন, আমাদের প্রতিরক্ষা বাজেটে সবচেয়ে বেশি লাভবান হবে চীন আর এ কারণে আমি তাতে ভেটো দেব। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প মনে করেন এই বাজেটে পূর্ব এশিয়ায় বিশেষ করে দক্ষিণ চীন সাগর এলাকায় চীনের প্রভাব রোধে কার্যকর কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। অবশ্য চীনের ব্যাপারে চরম বিদ্বেষের কারণেই ট্রাম্প এ ধরনের বক্তব্য দিয়েছেন বলে অনেক পর্যবেক্ষক মনে করছেন। ট্রাম্প ভেটো দেয়ার আরেকটি কারণ হচ্ছে, এতে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা হ্রাসের পথে বাধা সৃষ্টি করবে। যদিও ট্রাম্প চান সেনা সংখ্যা কমিয়ে আনতে। কিন্তু মার্কিন কংগ্রেসের বেশিরভাগ সদস্য আফগানিস্তানে সেনা মোতায়েনের পক্ষেই মত দিয়েছেন। তবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আগামী বছরের সামরিক বাজেটে ভেটো দেয়ায় ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকান উভয় দলের পক্ষ থেকেই তীব্র বিরোধিতার সম্মুখীন হয়েছেন। ডেমোক্রেট দলের সিনেটর মার্ক ওয়ারনার বলেছেন, জাতীয় নিরাপত্তা দুর্বল করে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এমন কার্যকলাপ অবসানের অপেক্ষায় আছি। তবে ট্রাম্পের ভেটো বাতিল করার জন্য কংগ্রেসের সামনে ৩ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় রয়েছে। ডেমোক্রেট দলের অন্তত ৮০ শতাংশ কংগ্রেস সদস্য যদি প্রস্তাবকে সমর্থন দেয় তাহলে ট্রাম্পের ভেটো বাতিল হয়ে যাবে।#






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply