sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » উইজডেনের বর্ষসেরা একাদশে নেই কোহলি-স্মিথ




উইজডেনের বর্ষসেরা একাদশে নেই কোহলি-স্মিথ

করোনাভাইরাসের কারণে এলোমেলো এক ক্যালেন্ডার কেটে গেল ক্রীড়াঙ্গনে। প্রায় শেষের দিকে ২০২০ সাল। কিন্তু বছরজুড়ে আয়োজন করা সম্ভব হয়নি তেমন কোন বড় টুর্নামেন্ট। করোনা ভীতির কারণে ক্রিকেটের বেশিরভাগ আয়োজনই স্থগিত করতে হয়েছে। চলতি বছরে এখন পর্যন্ত খেলা হয়েছে মাত্র ১৮টি টেস্ট ম্যাচ। এসব ম্যাচের পারফরমেন্সের ভিত্তিতে ২০২০ সালের সেরা টেস্ট একাদশ বাছাই করেছে জনপ্রিয় ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট উইজডেন। তবে শুধু চলতি বছর নয়, গত বছরেরও কিছু পরিসংখ্যান বিবেচনা নিয়েছে উইজডেন। ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ থেকে ১১ ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত মাঠে গড়ানো ২৩টি টেস্ট ম্যাচের পারফরমেন্সের ভিত্তিতে বাছাই করা হয়েছে সেরা একাদশ। তবে ১১ জনের সেরা টেস্ট একাদশে জায়গা হয়নি বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা দুই ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি ও স্টিভেন স্মিথের। উইজডেনের বাছাইকৃত এই সেরা একাদশের অধিনায়কের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসনকে। এছাড়া উইকেটরক্ষক হিসেবে রাখা হয়েছে কুইন্টন ডি কককে। ওপেনার হিসেবে থাকছেন ইংল্যান্ডের ডম সিবলি ও পাকিস্তানের শান মাসুদ। মিডলঅর্ডারে উইলিয়ামসনের সঙ্গে আছেন বাবর আজম ও মার্নাস লাবুশেইন। এই একাদশে স্মিথ ও কোহলির না থাকার কারণ বিবেচিত সময়ে তাদের পারফরমেন্স। ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ থেকে ১১ ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত সময়ে মাত্র ৩ ম্যাচ খেলেছেন স্মিথ, নামের পাশে নেই কোনো সেঞ্চুরি। এই ৩ ম্যাচের পাঁচ ইনিংসে ৪২.৮০ গড়ে মাত্র ২১৪ রান করেছেন স্মিথ। অন্যদিকে এ সময়ের মধ্যে বিরাট কোহলি খেলেছেন মাত্র চার টেস্ট। যেখানে তার সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি মাত্র ১৯ রানের। সবমিলিয়ে ৯.৫০ গড়ে ৩৮ রানের বেশি করতে পারেননি কোহলি। ফলে এই একাদশে জায়গা হয়নি তার। কোহলি ছাড়া উইজডেনের বর্ষসেরা একাদশে জায়গা হয়নি কোন ভারতীয় ক্রিকেটারের। সবচেয়ে বেশি তিনজন করে খেলোয়াড় রয়েছে নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ড থেকে। অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তানের খেলোয়াড় রয়েছেন দুজন করে। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে আছেন কুইন্টন ডি কক। উইজডেনের বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে ইংল্যান্ডের ডম সিবলি খেলেছেন ১০টি ম্যাচ। তাতে রান করেছেন ৪৩.২০ গড়ে ৬৪৮ রান। পাকিস্তানের শান মাসুদ ৬ ম্যাচে করেছেন ৪১৯ রান। সর্বোচ্চ ১৫৬ রান। অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া কেন উইলিয়ামসন করেছেন ৫ ম্যাচে ৪০৫ রান। সর্বোচ্চ ইনিংস ২৫১ রানের। এছাড়া পাকিস্তানের বাবর আজম ৬ ম্যাচে করেছেন ৬০০ রান। অস্ট্রেলিয়ার মার্নাস লাবুশেইনের নামের পাশে আছে ৫৪৯ রান। এছাড়া বোলার হিসেবে তালিকায় জায়গা পাওয়া কাইল জেমিসনের নামের পাশে আছে ২০টি উইকেট। ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ট ব্রড নিয়েছেন ৯ ম্যাচে ৪৩ উইকেট। টিম সাউদি ৬ ম্যাচ খেলে নিয়েছেন ৩৮টি উইকেট। উইজডেনের বর্ষসেরা টেস্ট একাদশ: ডম সিবলি (ইংল্যান্ড), শান মাসুদ (পাকিস্তান), কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড, অধিনায়ক), বাবর আজম (পাকিস্তান), মার্নাস লাবুশেইন (অস্ট্রেলিয়া), বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড), কুইন্টন ডি কক (দক্ষিণ আফ্রিকা, উইকেটরক্ষক), কাইল জেমিসন (নিউজিল্যান্ড), টিম সাউদি (নিউজিল্যান্ড), স্টুয়ার্ট ব্রড (ইংল্যান্ড) ও নাথান লায়ন (অস্ট্রেলিয়া)।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply