sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » ফুটবল নয়, রোনালদোর প্রিয় বক্সিং!




ফুটবল নয়, রোনালদোর প্রিয় বক্সিং!

পর্তুগিজ ফুটবল মহাতারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো জানিয়েছেন, অবসর সময়ে ফুটবল নয়, তিনি দেখেন বক্সিং কিংবা ইউএফসি (আল্টিমেট ফাইটিং চ্যালেঞ্জ)! বর্তমান সময়ের শ্রেষ্ঠ ফুটবলারদের একজন ক্রিস্টিয়ানো। কারো কারো মতো সর্বকালেরও অন্যতম সেরা ফুটবলার। ৫ বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী রোনালদোর আছে ৫টি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ট্রফি, বর্তমান সময়ে যেটি নেই আর কারো। যাই হোক, বক্সিংয়ের ২ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন গেনাডি গোলোভকিনের সঙ্গে এক আলাপচারিতায় তিনি জানিয়েছেন, কমব্যাট স্পোর্টস তার খুব পছন্দের। তিনি বলেন, ফুটবল খেলা হচ্ছে আমার প্যাশন। কিন্তু আমি টিভিতে অন্য খেলা দেখতে বেশি পছন্দ করি। ফুটবল এবং বক্সিং কিংবা ইউএফসির লড়াই থাকলে আমি বক্সিং অথবা ইউএফসি দেখি। ইংল্যান্ডে থাকাকালীন বক্সিংয়ের প্রতি তিনি আগ্রহী হয়ে ওঠেন বলেও জানান রোনালদো। তিনি বলেন, আমি যখন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ছিলাম তখন একজন কোচ আমার সঙ্গে বক্সিং খেলতেন। আমার মনে হয়, বক্সিং অনুশীলন ফুটবলের জন্য খুব উপকারী কারণ এতে আপনার মেধা আরো ক্ষুরধার হয় এবং আপনি দ্রুত মুভ করতে শেখেন। ক্যারিয়ারে ইউরোপের শীর্ষ লিগগুলোতে খেলা ৩৫ বছর বয়সী তারকা এখনো ধরে রেখেছেন তার ক্ষুরধার পারফরম্যান্স। গেল মৌসুমেও সিরিআয় করেছেন ৩১টি গোল। তিনি জানিয়েছেন কিভাবে বিভিন্ন পরিস্থিতিতে মানিয়ে নেয়ার জন্য সবসময় তার চেষ্টা অব্যাহত রাখেন। সেক্ষেত্রে শরীরের যত্নটা যে কতটা গুরুত্বপূর্ণ সেটিও ব্যাখ্যা করেছেন রোনালদো। তিনি বলেন, গেল গ্রীষ্মে আমি অ্যান্থোনি জশুয়ার সঙ্গে কথা বলি। এই বয়সে আপনার পা যে কথা শুনবেনা, সেটা আপনি বুঝতে পারবেন। আমি ফুটবল খেলে যেতে চাই। কিন্তু লোকজন আমাকে দেখে বলবে, ক্রিস্টিয়ানো অসাধারণ একজন ফুটবলার ছিলেন কিন্তু এখন স্লো হয়ে গেছেন। আমি এই কথাটা কখনো শুনতে চাইনা। আপনি আপনার শরীরের অনেককিছু পরিবর্তন করতে পারবেন চাইলে। কিন্তু সমস্যাটা এখানে নয়। আপনার মানসিকতা ঠিক করতে হবে, মোটিভেশন লাগবে এবং অবশ্যই লাগবে অভিজ্ঞতা। এগুলো খুবই জটিল বিষয়। খেলাধুলায় পরিণত হওয়াটা সবচেয়ে জরুরী। রজার ফেদেরারকে দেখুন। ৩৭-৩৮ বছর বয়সেও টেনিসের সেরাদের একজন। বক্সিংয়েও এমন কয়েকজন আছেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply