sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » দ্বিতীয় ধাপে পৌর মেয়রে ২৬২ জনসহ ৩৫৬২ মনোনয়ন জমা




পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন-২০২০’এর দ্বিতীয় ধাপে ৬১ মেয়র পদে লড়তে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ২৬২ জন প্রার্থী। আর দ্বিতীয় ধাপের এই ৬১ পৌরসভার তিন পদে নির্বাচন করতে মোট ৩৫৬২ জন জমা দিয়েছেন প্রার্থিতার মনোনয়নপত্র। আগামী বছর ১৬ জানুয়ারি এই ৬১ পৌরসভার নির্বাচনের ভোট গ্রহণ করা হবে। নির্বাচন কমিশনের (ইসি)ঘোষিত দ্বিতীয় ধাপের পৌরসভার নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী রোববার (২০ ডিসেম্বর) ছিল মনোনয়ন জমা দানের শেষ দিন। এদিন ৬১ পৌরসভার সংরক্ষিত নারী আসনের কাউন্সিলর পদগুলোর জন্য প্রার্থী হতে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ৭৬৪ জন। আর সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে জমা পড়ে ২ হাজার ৫৩৬ জনের প্রার্থিতার মনোনয়ন। রোববার (২০ ডিসেম্বর) পৌরসভা সাধারণ নির্বাচন-২০২০ এর সমন্বয়ক ও নির্বাচন কমিশনের উপসচিব (চলতি দায়িত্ব) মিজানুর রহমান মনোনয়ন জমাদানের শেষ দিনের কার্যক্রম শেষে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান। আরও পড়ুন: ৩০ জানুয়ারি আরও ৬৪ পৌরসভায় ভোট ইসির তফসিল অনুযায়ী আগামী বছরের ১৬ জানুয়ারি দ্বিতীয় ধাপের পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। রোববার (২০ ডিসেম্বর) শেষ দিন পর্যন্ত জমা পড়া মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে ২২ ডিসেম্বর মঙ্গলবার। আর যাচাই-বাছাই শেষে বৈধ প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সুযোগ থাকছে ২৯ ডিসেম্বর মঙ্গলবার পর্যন্ত। এদিকে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর জানিয়েছেন, দ্বিতীয় ধাপে ২৯টি পৌরসভায় ইভিএম’র মাধ্যমে এবং বাকি ৩২টি পৌরসভায় ভোট গ্রহণ করা হবে ব্যালটের মাধ্যম। কমিশন থেকে পাওয়া তথ্যানুযায়ী, নতুন বছরের ১৬ জানুয়ারি চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ (ব্যালট), সিরাজগঞ্জের কাজীপুর (ইভিএম), বেলকুচি (ব্যালট), উল্লাপাড়া (ব্যালট), সদর (ব্যালট) ও রায়গঞ্জ (ব্যালট), নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ (ব্যালট), কুষ্টিয়া সদর (ব্যালট), কুমারখালী (ইভিএম), ভেড়ামারা (ব্যালট) ও মিরপুর (ব্যালট), মৌলভীবাজারের কুলাউড়া (ব্যালট) ও কমলগঞ্জ (ব্যালট), নারায়ণগঞ্জের তারাবো (ইভিএম), শরীয়তপুর সদর (ইভিএম), কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী (ব্যালট), গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ (ব্যালট) ও সদর (ব্যালট), দিনাজপুর সদর (ব্যালট), বিরামপুর (ব্যালট) ও বীরগঞ্জ (ইভিএম), নওগাঁর নজিপুর (ইভিএম), পাবনার ভাঙ্গুড়া (ব্যালট), ফরিদপুর (ইভিএম), সাথিয়া (ব্যালট), ঈশ্বরদী (ব্যালট) ও সুজানগর (ব্যালট), রাজশাহীর আড়ানী (ইভিএম), ভবানীগঞ্জ (ব্যালট) ও কাকনহাট (ইভিএম), সুনামগঞ্জ সদর (ব্যালট), ছাতক (ব্যালট) ও জগন্নাথপুর (ইভিএম), হবিগঞ্জের মাধবপুর (ব্যালট) ও নবীগঞ্জ (ব্যালট), ফরিদপুরের বোয়ালমারী (ব্যালট), ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া (ইভিএম) ও মুক্তাগাছা (ব্যালট), মাগুরা সদর (ইভিএম), ঢাকার সাভার (ইভিএম), নাটোরের নলডাঙ্গা (ইভিএম), গুরুদাসপুর (ব্যালট) ও গোপালপুর (ব্যালট), বগুড়ার শেরপুর (ব্যালট), সারিয়াকান্দি (ইভিএম) ও সান্তাহার (ইভিএম), পিরোজপুর সদর (ইভিএম), নেত্রকোনার কেন্দয়া (ইভিএম), মেহেরপুরের গাংনী (ইভিএম), ঝিনাইদহের শৈলকুপা (ইভিএম), পার্বত্য খাগড়াছড়ি সদর (ইভিএম), বান্দরবান জেলার লামা (ব্যালট), নীলফামারীর সৈয়দপুর (ইভিএম), টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী (ইভিএম), কুমিল্লার চান্দিনা (ইভিএম), ফেনীর দাগনভূঞা (ইভিএম), কিশোরগঞ্জ সদর (ব্যালট) ও কুলিয়ারচর (ইভিএম), নরসিংদীর মনোহরদী (ইভিএম), নোয়াখালীর বসুরহাট (ইভিএম) এবং বাগেরহাটের মোংলা (ইভিএম) এই মোট ৬১ পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply