sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » ভিত্তিহীন খবর প্রচারের শীর্ষে আল-জাজিরা




ভিত্তিহীন খবর প্রচারের শীর্ষে আল-জাজিরা ভিত্তিহীন, অসত্য ও মনগড়া সংবাদ প্রচারের অভিযোগে নানা সময় আল-জাজিরার সম্প্রচার বন্ধ করে দেয় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ পারস্য উপসাগরীয় কয়েকটি দেশ কাতারভিত্তিক এ মিডিয়া নেটওয়ার্কের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে মদদ দেওয়ার অভিযোগও তুলেছে। এছাড়া, ভারত-বিরোধী সংবাদ ও তথ্য উপস্থাপনের অভিযোগে ২০১৫ সালে দেশটিতে বন্ধ করে দেওয়া হয় আল-জাজিরার সম্প্রচার। ১৯৯৬ সালে সম্প্রচার শুরুর পর থেকেই নানা সময় বিতর্কিত ও ভিত্তিহীন খবর প্রকাশের অভিযোগ ওঠে কাতারভিত্তিক টেলিভিশন নেটওয়ার্ক আল-জাজিরার বিরুদ্ধে। আঞ্চলিক প্রভাব বিস্তার ও আরব দেশগুলোতে সরকার পরিবর্তনের জন্য বিভিন্ন সময় চ্যানেলটিকে ব্যবহার করতো কাতার সরকার। বিশেষ করে আরব বসন্তের সময় মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করতে বিক্ষোভকারীদের উস্কে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে আল-জাজিরার বিরুদ্ধে। মিশরের উগ্ররাজনৈতিক দল মুসলিম ব্রাদারহুডের সঙ্গে সম্পৃক্তর খবরও প্রকাশ হয়েছে বিভিন্ন সময়। ২০১৭ সালের ৫ জুন চ্যানেলটির বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদের সমর্থনের অভিযোগে কাতারের ওপর একযোগে অবরোধ আরোপ করে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, মিশর ও বাহরাইন। দাবি ওঠে টেলিভিশন চ্যানেলটি বন্ধ করে দেওয়ার। এর আগে, ভুয়া সংবাদ প্রচারের অভিযোগে মিশরে আটক হন টেলিভিশন নেটওয়ার্কটির বেশ কয়েকজন সংবাদিক। ইরাক যুদ্ধের সময় বিতর্কিত সংবাদ প্রচারের অভিযোগে সাংবাদিকদের বহিষ্কার ও সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়। জঙ্গিগোষ্ঠী আল-কায়দাকে সমর্থনের অভিযোগে ২০০৩ সালের সেপ্টেম্বরে স্পেনে আটক হন চ্যানেলটির এক সাংবাদিক। আরো পড়ুন: 'বন্দুকের নলে ক্ষমতা নেয়া সেনাবাহিনীকে বিশ্বাস করি না' আন্দামান দ্বীপ ও জম্মু-কাশ্মীরকে বাদ রেখে ভারতের রাজনৈতিক মানচিত্র তুলে ধরার অভিযোগে ২০১৫ সালের এপ্রিলে ৫ দিনের জন্য আল-জাজিরা টেলিভিশনের সম্প্রচার বন্ধ রাখা হয়। এছাড়া, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচারের অভিযোগে বিভিন্ন সময় সম্প্রচার বন্ধ করে দেয় মালয়েশিয়া, আলজেরিয়া, সুদান, লিবিয়া ও কুয়েতসহ বেশ কয়েকটি দেশ। বাংলাদেশের যুদ্ধাপরাধ মামলার রায় নিয়ে খবর প্রকাশের সময়েও বিতর্কের জন্ম দেয় আল-জাজিরা। ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতাদের ইসলামিক স্কলার হিসেবে উল্লেখ করে চ্যানেলটি। জামায়াত নেতা মীর কাশেম আলীর বিদেশি লবিস্টে অবৈধভাবে অর্থপাচারের সঙ্গে আল-জাজিরার সম্পৃক্ততার প্রমাণ বলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়নি বাংলাদেশ সরকার। ২০১৩ সালে উগ্র ধর্মান্ধগোষ্ঠী হেফাজতের ইসলামের শাপলা চত্বর ঘেরাও কর্মসূচি নিয়েও উস্কানিমূলক খবর প্রকাশ করে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক চ্যানেল আল-জাজিরা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply