sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশে নিবন্ধন করেছেন ৯২৫৬ সুন্দরী




মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশে নিবন্ধন করেছেন ৯২৫৬ সুন্দরী

বাংলাদেশে দ্বিতীয়বারের মতো হতে চলেছে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-২০২০। করোনাকালে ২০২০ সালে মূল আয়োজনের কথা থাকলেও তা ২০২১ এ নিয়ে আসা হয়েছে এবার। শুক্রবার ৪ ফেব্রুয়ারি নিবন্ধনের শেষ তারিখ ছিল। নিবন্ধনের তারিখ ঘোষণার পর থেকে ৩৫ দিনে ৯ হাজার ২৫৬ জন তরুণী অংশ নিয়েছেন। শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশের পরিচালক শফিকুল ইসলাম। এর আগে ১৩ জানুয়ারি থেকে ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এবারের মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতার নিবন্ধনের তারিখ ঘোষণা করে আয়োজকরা। পরে ০৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তারিখ বাড়ানো হয়। এ ছাড়া শুরুর দিকে আবেদন ফি ১০০০ টাকা নির্ধারণ করা হলেও সামগ্রিক কোভিড-১৯ পরিস্থিতি বিবেচনা করে নিবন্ধন ফি তুলে নেওয়া হয়। ফলে নিবন্ধন ফি ছাড়াই আবেদন করেন প্রতিযোগীরা। প্রথম পর্যায়ে যারা পূর্বনির্ধারিত ফি দিয়ে নিবন্ধন করেছিলেন তাদের ফি মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ফেরত দেওয়া হয়। আয়োজকরা জানান, পর্যায়ক্রমে অডিশনের মাধ্যমে বাছাই এবং গ্রুমিং শেষে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-২০২০-এর গ্র্যান্ড ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে মার্চ মাসে। বাংলাদেশ পর্বে বিজয়ী আগামী মে মাসে অংশ নেবেন যুক্তরাষ্ট্রে মিস ইউনিভার্সের মূল আয়োজনে। ‘২০১৯’ সালে প্রথমবার ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ অনুষ্ঠিত হয়। ২৩ অক্টোবর রাতে বসুন্ধরা কনভেনশনের নবরাত্রী হলে অনুষ্ঠানের চূড়ান্ত পর্বে বিজয়ী শিরিন আক্তার শিলার নাম ঘোষণা করা হয়। ১২ হাজার ৫ শতাধিক প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে মিস ইউনিভার্স মুকুট জিতে নেন তিনি। এই প্রতিযোগিতায় প্রথম রানার্সআপ হয়েছেন আনিশা ইসলাম ও দ্বিতীয় রানার্সআপ জেসিয়া ইসলাম। বিজয়ী শিলার মাথায় মুকুট পরিয়ে দেন সাবেক মিস ওয়ার্ল্ড ও ভারতীয় তারকা সুস্মিতা সেন। ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ এর বিজয়ী শিলা দক্ষিণ কোরিয়ায় আয়োজিত ‘মিস ইউনিভার্স’ প্রতিযোগিতার ৬৮তম আসরে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। প্রতিযোগিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশের ওয়েবসাইট ww.missuniverse.com.bd এবং অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ www.facebook.com/MUBangladesh এ






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply