sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » মিয়ানমারে বিক্ষোভ-ধর্মঘট বানচালে মরিয়া সামরিক জান্তা, চলছে ধরপাকড়




মিয়ানমারে সামরিক জান্তার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ-আন্দোলন অব্যাহত রয়েছে। ছবি : সংগৃহীত মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করা জান্তার বিরুদ্ধে আন্দোলন-বিক্ষোভ-ধর্মঘট জারি রয়েছে। সামরিক জান্তাও ব্যাপক ধরপাকড়ের মাধ্যমে বিক্ষোভ দমনের চেষ্টা করে যাচ্ছে। এরই মধ্যে ধর্মঘটে অচল হয়ে পড়েছে অনেক সরকারি দপ্তর। ধর্মঘটে উৎসাহ দেওয়ার অভিযোগে মিয়ানমারের ছয় তারকা ব্যক্তিত্বের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করছে সামরিক জান্তা। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে। মিয়ানমারে চলতি মাসের শুরুতে সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে গতকাল বুধবার পর্যন্ত ৪৯৫ জনকে গ্রেপ্তার বা আটক করা হয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে দেশটির রাজনৈতিক বন্দিদের সহায়তা প্রদানকারী সংগঠন মিয়ানমার’স অ্যাসিসট্যান্স ফর পলিটিক্যাল প্রিজনারস্‌। সংগঠনটি জানিয়েছে, বিভিন্ন সময়ে কিছু বন্দি ছাড়া পেলেও এখনো ৪৬০ জনকে আটক করে রাখা হয়েছে। এদিকে গতকাল বুধবার দিনের শেষদিকে মিয়ানমারের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মান্দালয়ে জনতার অমান্যতা আন্দোলনে অংশ নেওয়া রেলওয়ে কর্মীদের ওপর গুলি চালিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আন্দোলনের অংশ হিসেবে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়ায় তাদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করা হয়েছে। মিয়ানমারের বিভিন্ন বড় শহরে লাখো মানুষ গতকাল রাজপথে বিক্ষোভে অংশ নেয়। এদিকে আজ বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতে মিয়ানমারের বৃহত্তম শহর ইয়াঙ্গুনের প্রধান বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে একটি ব্যস্ত সড়কের মোড়ে অবস্থান নেওয়া স্লোগানরত বিক্ষোভকারীদের সেখান থেকে সরে দেওয়ার নির্দেশ দেয় পুলিশ। আজ সারা দিনে নগরের বিভিন্ন স্থানে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে। মিয়ানমারে এর আগে অর্ধশতাব্দী ধরে জারি থাকা সামরিক শাসনকালের রক্তাক্ত দমনপীড়নের বিপরীতে এবারের রাজপথের আন্দোলন-বিক্ষোভ অনেক শান্তিপূর্ণ। তবে রয়টার্স বলছে, শান্তিপূর্ণ হলেও জনতার এই অমান্যতা আন্দোলনের প্রভাব মোটেও খাটো করে দেখার মতো নয়। সরকারি চাকুরিজীবীদের আন্দোলন-বিক্ষোভে অংশ নিতে উৎসাহ দেওয়ার অভিযোগে গতকাল চলচ্চিত্র পরিচালক, অভিনেতা, গায়কসহ মিয়ানমারের ছয়জন তারকার বিরুদ্ধে উসকানি প্রতিরোধ আইনের আওতায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ঘোষণা করে সামরিক জান্তা। দোষী প্রমাণ করা সাপেক্ষে এই আইনে তাঁদের দুই বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। তবে, গ্রেপ্তারি পরোয়ানা মাথায় নিয়েও জান্তার বিরুদ্ধে মুখ বন্ধ রাখেননি কেউ কেউ। অভিনেতা লু মিন তাঁদের একজন। নিজের ফেসবুক পেইজে এই তারকা লিখেছেন, ‘দেশবাসীর একতা দেখতে দারুণ লাগছে। জনতার ক্ষমতা অবশ্যই জনতার কাছে ফিরিয়ে দিতে হবে।’ আন্দোলনে অংশ নেওয়া সরকারি চাকুরিজীবীরা কাজে ফিরে না গেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দিয়েছে সামরিক জান্তা। তবে সে হুমকি কেউ পাত্তা দেওয়ার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী দেশটির নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে নেয়। ক্ষমতাসীন দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসির নেত্রী অং সান সু চি ও অন্য শীর্ষ নেতাদের গ্রেপ্তার করে সামরিক বাহিনী। এর প্রতিবাদে দেশটিতে বিক্ষোভ চলছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply