sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » প্রধানমন্ত্রী’র পথনকশা অনুযায়ী এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ: এলজিআরডি মন্ত্রী




স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উন্নত সোনার বাংলা গড়তে তাঁর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পথনকশা অনুযায়ী দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সততা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার কারণেই হতদরিদ্র দেশ থেকে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের কাতারে স্থান করে নিয়েছে। তাঁর দৃঢ় নেতৃত্বে দেশ খাদ্য ঘাটতির থেকে খাদ্য উদ্বৃত্তের দেশে পরিনিত হয়েছে। মন্ত্রী আরও বলেন, তিনি (প্রধানমন্ত্রী) ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও উন্নত-সমৃদ্ধ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলতে মহাপরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি আজ জেলা শহরে জামালপুর জেলা পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত নবনির্মিত মির্জা আজম অডিটোরিয়াম ভবনের উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি, তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এমপি, জামালপুর সদর আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মো. মোজাফফর হোসেন ও স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ। মো. তাজুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৯ সালে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নেয়ার সময় আমাদের মাথাপিছু আয় ৫শ’ ডলারের কাছাকাছি ছিল। বর্তমানে তা বৃদ্ধি পেয়ে দু’হাজার ডলারের বেশি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিচক্ষণতায় আওয়ামী লীগ বার বার সরকার গঠন করে দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করে বিশ্বে মর্যাদার সঙ্গে মাথা উঁচু করে বাঁচার ব্যবস্থা করেছেন। এর আগে মন্ত্রী জামালপুর সার্কিট হাউজে স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতায় দপ্তর ও সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এছাড়াও তাজুল ইসলাম জেলা শহরের প্রাণকেন্দ্রে নির্মাণাধীন শেখ হাসিনা সাংস্কৃতিক পল্লী প্রকল্প ও মেলান্দহ উপজেলার মহিরামকুলে জামালপুর পল্লী উন্নয়ন একাডেমী প্রকল্পসহ বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply