sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » বেশি ফলন পাওয়ার লক্ষ্যে মেহেরপুর জেলা এই প্রথম শুরু হয়েছে যন্ত্র দিয়ে ধান রোপণ




উৎপাদন খরচ হ্রাস ও

কার্যক্রম। গাংনী উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্যোগে বাথানাপাড়া মাঠে ৫০ একর জমিতে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার দিয়ে ধান রোপণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন মেহেরপুর জেলা প্রশাসক ড. মুনছুর আলম খান। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, খোরপোষ কেন্দ্রিক কৃষি থেকে আজকের কৃষি হয়ে উঠেছে অর্থনৈতিক কৃষি। মেহেরপুর জেলা কৃষি নির্ভর ও কৃষি উন্নত জেলা। এ জেলার প্রতি ইঞ্চি মাটিই কৃষকরা কাজে লাগাই ফসল উৎপাদনে। বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। কৃষিতে সরকারিভাবে বিভিন্ন পর্যায়ে প্রণোদনা দিচ্ছে। বিজ্ঞান ভিত্তিক কৃষি হলে জেলার কৃষকরা একদিন আর্থিক ভাবে সাবলম্বি হবে। এ বিষয়টি মাথায় রেখে এবং অল্প সময় ও কম খরচে কৃষকরা যেন তাদের ফনল উৎপাদন করতে পারে তার জন্য কৃষকদের মাথে ট্রান্সপ্লান্টার মেশিন কৃষকদের দেয়া হচ্ছে। এ মেশিন কৃষকরা পেয়ে অনেকটাই আনন্দের সাথে গ্রহন করেছেন। আগামীর কৃষি হবে যান্ত্রিক কৃষি। বুধবার দুপুরে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ খালেক, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক স্বপন কুমার খাঁ,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন, গাংনী উপজেলা কৃষি অফিসার কেএম শাহাবুদ্দীন আহম্মেদ,রাইপুর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম সাকলায়েন সেপু। ২০২০-২১ রবি মৌসূমে সরকারের প্রণোদনা কর্মসুচীর আওতায় বোরো হাইব্রিড ধানের সমলয় চাষাবাদ ব্লক প্রদর্শনীর আওতায় এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছেন গাংনী উপজেলা কৃষি অফিস। যন্ত্র দিয়ে ধান রোপণ কার্যক্রম সাড়া ফেলেছে এলাকার কৃষকদের মাঝে। অনুষ্ঠানে এলাকার কৃষাণ কৃষানীরা উপস্থিত ছিলেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply